চট্টগ্রাম-সেন্টমার্টিন রুটে বিলাসবহুল প্রমোদতরীর যাত্রা শুরু আজ

চট্টগ্রাম-সেন্টমার্টিন রুটে বিলাসবহুল প্রমোদতরীর যাত্রা শুরু আজ

ভ্রমণ প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০১ ১৪ জানুয়ারি ২০২১  

বিলাসবহুল প্রমোদতরী এম ভি বে ওয়ান। ছবি: সংগৃহীত

বিলাসবহুল প্রমোদতরী এম ভি বে ওয়ান। ছবি: সংগৃহীত

প্রথমবারের মতো চট্টগ্রাম থেকে সেন্টমার্টিন নৌরুটে যাত্রা শুরু করছে পর্যটকবাহী বিলাসবহুল প্রমোদতরী এম ভি বে ওয়ান।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় বন্দর নগরীর পতেঙ্গা এলাকার ওয়াটার বাস টার্মিনাল থেকে জাহাজটি যাত্রী নিয়ে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে।

এমভি বে ওয়ানের পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান কর্ণফুলী শিপ বিল্ডার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ রশিদ জানান, এমন জায়গা থেকে জাহাজটি ছাড়া হচ্ছে, যেটা বিমানবন্দরের খুবই কাছে। সপ্তাহে তিন দিন ‘বে ওয়ান ক্রুজ’ পতেঙ্গা ওয়াটার বাস টার্মিনাল থেকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

বাংলাদেশের প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রুজ শিপ এটি। জাপানের কোবে শহরের মিতসুবিশি হেভি ইন্ডাস্ট্রিজে তৈরি করা বিলাসবহুল এ প্রমোদতরীর দৈর্ঘ্য ৪৫০ ফুট ও প্রস্থ ৫৫ ফুট। জাহাজের দুইপাশে দুটি বড় ফ্যান আছে। সমুদ্রে ঝড়ো হাওয়া শুরু হলে দুইপাশে এগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে বের হয়ে আসবে। তখন জাহাজটি স্থির হয়ে থাকবে।

প্রতি সপ্তাহের বৃহস্পতি, শুক্র ও শনিবার রাত ১১ টায় চট্টগ্রাম থেকে জাহাজটি ছাড়বে এবং সকাল ৭টায় এটি সেন্টমার্টিন পৌঁছাবে। সেন্টমার্টিন থেকে শুক্র, শনি ও রবিবার দুপুর একটায় ফিরতি যাত্রী নিয়ে সেন্টমার্টিন থেকে ছাড়বে। সন্ধ্যা ৭টায় জাহাজটি চট্টগ্রামে আসবে।

এম ভি বে ওয়ান। ছবি: সংগৃহীত

সেন্টমার্টিনগামী পর্যটকদের জন্য সর্বনিম্ন আসা-যাওয়া ৩ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত একাধিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কর্ণফুলী শিপ বিল্ডার্স। নাশতা-খাবারসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা রয়েছে এই জাহাজে। জাহাজে রাত্রিযাপনের পাশাপাশি সমুদ্র বিনোদনেরও সুযোগ আছে।

এম এ রশিদ বলেন, সেন্টমার্টিনের অফ-সিজনে আমরা নতুন রুট তৈরির ব্যাপারে সরকারের কাছে প্রস্তাব দিয়েছি। জাহাজটি আন্তর্জাতিক রুটে চলাচল করতে সক্ষম। তাই সরকার যদি চায় হজকালীন সময়ে আমরা এটিকে সৌদি আরব রুটে চলাচল করাতে পারবো। এ ছাড়া মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর রুটেও চলাচল করতে পারবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে