অতিরিক্ত পর্যটক নিয়ে ডুবোচরে আটকা পড়ল সেন্টমার্টিনগামী জাহাজ

অতিরিক্ত পর্যটক নিয়ে ডুবোচরে আটকা পড়ল সেন্টমার্টিনগামী জাহাজ

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০৫ ২৬ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ২০:০৬ ২৬ নভেম্বর ২০২০

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটের জাহাজ এমভি ফারহান

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটের জাহাজ এমভি ফারহান

ধারণ ক্ষমতার দেড়গুণ বেশি পর্যটক নিয়ে কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন যাওয়ার সময় বঙ্গোপসাগরের ডুবোচরে আটকা পড়েছিল এমভি ফারহান জাহাজ। প্রায় সাড়ে চার ঘণ্টা আটকে থাকার পর জাহাজটি সেন্টমার্টিন পৌঁছায়।

বৃহস্পতিবার সকালে টেকনাফের নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পর্যটকরা জানান, সকাল ১০টার দিকে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে প্রায় দেড়শ পর্যটক বেশি নিয়ে টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট থেকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্য যাত্রা করে এমভি ফারহান। সাড়ে ১১টার দিকে মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী বঙ্গোপসাগরের নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকায় ডুবোচরে আটকা পড়ে জাহাজটি। এতে পর্যটকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

এ বিষয়ে জানতে এমভি ফারহান জাহাজের ম্যানেজার সোহেলের মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

টেকনাফের ইউএনও মো. সাইফুল বলেন, জাহাজ আটকা পড়ার খবর পেয়ে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে ১০টি বিশেষ বোটে করে আটকে পড়া পযর্টকদের নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকা থেকে সেন্টমার্টিন নিয়ে যাওয়া হয়। সাড়ে ৩টার দিকে জাহাজটি সচল হয়ে সেন্টমার্টিন পৌঁছায়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জাহাজটি পর্যটকদের নিয়ে সেন্টমার্টিন থেকে টেকনাফের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে। সে পর্যন্ত কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার তথ্য পাইনি।

তিনি আরো বলেন, অতিরিক্ত পর্যটক বহন করায় এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর