মহির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে এথিক্স কমিটি: বাফুফে সভাপতি

মহির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে এথিক্স কমিটি: বাফুফে সভাপতি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০৩ ৩ মার্চ ২০২১  

কথা বলছেন কাজী সালাউদ্দিন

কথা বলছেন কাজী সালাউদ্দিন

গ্রাহকদের বন্ধক রাখা সোনা আত্মসাতের মামলায় বাংলাদেশ সমবায় ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মহির নাম উঠে এসেছে। তার ব্যাপারে বাফুফের এথিক্স কমিটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। 

বুধবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বাফুফে সভাপতি বলেন, মহি বাফুফেতে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে এসেছে। এএফসি থেকে চিঠি যেটা আসছে, এটা নিয়ে মিডিয়ার সামনে কথা বলার এখনো সুযোগ নেই। এএফসি এ বিষয়ে বাফুফের অবস্থান জানতে চেয়েছে। আমরা আমাদের এথিক্স কমিটিতে চিঠিটা পাঠিয়েছি। বিষয়টি নিয়ে আমাদের এথিক্স কমিটি সরাসরি এএফসির সঙ্গে যোগাযোগ করবে। 

এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার বিষয়ে সালাউদ্দিন বলেন, এখানে আমরা বাফুফে থেকে ব্যক্তিগতভাবে কিছু করতে পারবো না। এথিক্স কমিটি যদি বলে উনি থাকবে তাহলে থাকবে, সাসপেন্ড করতে বললে সেটাই হবে। এথিক্স কমিটি যা বলবে সেটা আমরা এএফসিতে পাঠাবো। তখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে। 

বাফুফে সভাপতি আরো বলেন, এএফসি থেকে যে চিঠি এসেছে সেটা উনাকে (মহি) পাঠানো হয়েছে। উনি আমার কাছে ব্যাখ্যা করতে চেয়েছিল, আমি বলেছি আমার কাছে ব্যাখ্যা করার কোনো দরকার নাই। এটা আনুষ্ঠানিকভাবে এথিক্স কমিটির কাছেই ব্যাখ্যা করতে হবে। সেই কমিটিই সিদ্ধান্ত নেবে। আমি এর মধ্যে কেনো জড়াবো। 

এদিকে মহি এ বিষয়ে বলেন, এএফসি থেকে যে অভিযোগ এসেছে সে বিষয়ে বাফুফে সভাপতির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে আমার কাছে মৌখিকভাবে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছিল, আমি উত্তর দিয়েছি। বাফুফে লিখিতভাবে আমার অবস্থান জানতে চাইলে আমি অবশ্যই সেটা তখন পরিষ্কার করবো। 

বাফুফে সহ সভাপতি যোগ করেন, আমার বিরুদ্ধে এখন এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। এখন সেখানে আমার ব্যাপারে তদন্ত করা হবে। দুদক যদি তদন্ত করে আমার কোনো সম্পৃক্ততা পায় তখন মামলার চার্জশিট দেবে, আদালতে যাবে, বিচার হবে। তারপরে বিচারকার্য সম্পন্ন হওয়ার পর যদি আমার নাম চার্জশিটে অন্তর্ভূক্ত থাকে, আমি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হই তখনই আমাকে অভিযুক্ত বলা যেতে পারে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এএল