অধিনায়ক হিসেবে উদাহরণ সৃষ্টি করতে চান জেসন

অধিনায়ক হিসেবে উদাহরণ সৃষ্টি করতে চান জেসন

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৫৬ ১৫ জানুয়ারি ২০২১  

জেসন মোহাম্মদ

জেসন মোহাম্মদ

চলতি বাংলাদেশ সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলকে হিসেবের খাতা থেকে বাদ দিচ্ছেন সবাই। তবে এর মধ্যেই হুংকার দিয়ে সফরকারী ক্যারিবীয় দলটির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ বলেছেন নেতা হিসেবে তিনি উদারহরণ সৃষ্টি করতে চান এবং বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ জিততে চান।

কোভিড-১৯ ও ব্যক্তিগত কারণে ওয়ানডে অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড ও টেস্ট অধিনায়ক জেসন হোল্ডারসহ শীর্ষ ১২ খেলোয়াড় ছাড়াই বাংলাদেশ সফরে এসেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল।

যে কারণে দ্বিতীয় সারির দল পাঠাতে বাধ্য হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এমনকি জেসন মোহাম্মদ নিজেই ২০১৮ সালের পর প্রথম জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন।

কেবলমাত্র ভালভাবে দলের নেতৃত্বই নয়, পুনরায় সেরা একাদশে নিজের স্থানও পাকা করতে চান জেসন।

তিনি বলেন, দুই বছর যাবত আমি দলের বাইরে ছিলাম। দলের নেতা হিসেবে আমার একটা ভুমিকা থাকবে। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমি এ চ্যালেঞ্জের জন্য মুখিয়ে আছি। ভাল একটা সিরিজ খেলা এবং পূর্ণ শক্তির দলে নিজের অবস্থান পোক্ত করতে এটা আমার জন্য একটা ভাল সুযোগ। যাতে সত্যিই আমি পুনরায় দলে ফিরতে পারি।

তিনি আরো বলেন, অন্যান্য দলের নেতৃত্ব দেয়ার অভিজ্ঞতা আমার রয়েছে। তবে এবার অবশ্যই বড় পর্যায়ে এবং এমন কিছুর জন্য আমি মুখিয়ে আছি।

তার দলের অধিকাংশ খেলোয়াড়ই অনভিজ্ঞ এবং জেসন জানেন একটা তারুণ্য নির্ভর দলকে নেতৃত্ব দেয়াটা কঠিন হবে। কেননা সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ধুকতে হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বশেষ পাঁচ ওয়ানডের একটিতেও জিততে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২০১৮ সালে সর্বশেষ জয় পেয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তিন ম্যাচের সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল টাইগাররা।

‘রেকর্ড অনুসারে গত দুই বার তারা আমাদের চেয়ে ভাল করেছে। আমরা একটা তারুণ্য নির্ভর দল। ধারাবাহিকভাবে একশ ওভার ভাল ক্রিকেট খেলতে পারলে ম্যাচ জেতা আমাদের পক্ষে সম্ভব বলে আমি মনে করি। মূল বিষয় হবে ধারাবাহিকতা এবং আমাদের দক্ষতা ভালভাবে বাস্তবায়ন করা’- বলে উল্লেখ করেন জেসন।

সদ্য বাংলাদেশ সফররত ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দলকে উদ্বুদ্ধ করতে খোলা চিঠি দিয়েছেন দেশটির কিংবদন্তি ক্রিকেটার ক্লাইভ লয়েড।

নিজেদেরকে দ্বিতীয় সারির খেলোয়াড় না ভেবে, নিজেদের যোগ্যতা প্রমানের প্রতি জোড় দিতে দলের খেলোয়াড়দের পরামর্শ দেন তিনি।
লয়েডের চিঠির ব্যাপারে জেসন বলেন,এটি আমাদের একজন গ্রেটের পক্ষ থেকে এসেছে। অবশ্যই, এমন ধরনের উৎসাহী কথা আপনি শুনতে চান। চারদিকে, অনেক নেতিবাচক কথা বার্তা চলছে। যখন আপনি ক্লাইভ লয়েডের মত ব্যক্তির কাছ থেকে এমন কথা শুনতে পান, এর মানে, তিনি অনেক বেশি বিশ্বাস রাখেন’।

জেসন আরো বলেন, একটি বিশ্বকাপ আসার সঙ্গে-সঙ্গে, আমাদের সবার হাত বাড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করার সুযোগ রয়েছে। প্রথমত, যখন পুরো দল ফিরে আসে, তখন আসলটি দলটি পাওয়া যায়। আমাদের বিশ্বকাপে যাবার সুযোগ রয়েছে। এটি দলকে অনুপ্রাণিত করছে, আশা করি, আমরা প্রত্যাশামাফিক সবকিছু ফিরিয়ে দিতে পারবো’।

বাংলাদেশের প্রথম অনুশীলন পর্বের আগে হোটেলে তিন দিনের কোয়ারেন্টাইন কাটাতে হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে। হোটেলে কিভাবে একাকী সময় কাটিয়েছেন, সেটি জানিয়েছেন জেসন, ‘তিন দিন হোটেল রুমে থাকতে প্রথমে কিছুটা কষ্ট হয়েছিলো। টিভিতে অনেক বেশি সময় কাটিয়েছি আমি। বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে কথা বলে এবং টিভি দেখে সময় কাটাতে হয়েছে’।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস