‘বাবর আমাকে গর্ভবতী করেছে, শারীরিক নির্যাতন করেছে’

‘বাবর আমাকে গর্ভবতী করেছে, শারীরিক নির্যাতন করেছে’

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:০৬ ২৯ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:২১ ২৯ নভেম্বর ২০২০

হামিজা মুখতার ও বাবর আজম

হামিজা মুখতার ও বাবর আজম

কিউইদের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ডে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের  অধিনায়ক বাবর আজম। এ সময় তার বিরুদ্ধে যৌননির্যাতন ও অর্থ লোপাটের গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন এক পাকিস্তানি নারী।  অভিযোগে হামিজা মুখতার নামের ঐ তরুণী জানান, বাবর তাকে গর্ভবতী করেছে, শারীরিক নির্যাতন করেছে’ যেমন ইচ্ছা ব্যবহার করেছেন। এমনকি কোটি রুপিও নিয়েছেন।

শনিবার লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলনে হামিজা এসব কথা জানান। হামিজা বলেন, স্কুল জীবন থেকেই বাবরের সঙ্গে তার পরিচয়। ক্রিকেটার হওয়ার জন্য বাবর আজমের পেছনে অনেক টাকা খরচ করেছেন। বার বার বিয়ের আশ্বাস দিয়েও বাবর এখন তাকে প্রত্যাখ্যান করছেন।
পাকিস্তান অধিনায়কের বিরুদ্ধে তিনি যৌন ও শারীরিক নির্যাতন এবং অর্থ লোপাটের অভিযোগ এনেছেন।

হামিজার দাবি, বাবর বড় তারকা হওয়ার আগে দুইজনের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। সে সময় কাছাকাছি এলাকায় থাকতেন তারা। ২০১০ সালে বাবর তাকে প্রেমের প্রস্তাব দেন বলে দাবি এই তরুণীর। ২০১১ সালে কোর্টে বিয়ে করার জন্য বাবরকে প্রস্তাব দিলেও বাবর সাড়া দেননি। 

হামিজা জানান, ২০১২ অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলের নেতৃত্বে ছিলেন তিনি। খ্যাতি এবং সুনাম বাড়ছিল তার। একই সঙ্গে পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে খেলার হাতছানি তার সামনে। এসব কারণে তখন তিনি হামিজাকে আর বিয়ে করেননি।

পাকিস্তানের ভেতরে খেলা থাকলে হোটেলে পিসিবি যে রুম বাবরকে বরাদ্দ দিত সেই রুমের পাশের রুমেই হামিজা উঠতেন।

সাজ সাদিক নামে পাকিস্তানের এক সাংবাদিক টুইটারে ওই নারীর প্রেস কনফারেন্সের ভিডিও পোস্ট করে তার বক্তব্য এভাবে তুলে ধরেছেন, সে আমাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। সে আমাকে গর্ভবতী করেছে, শারীরিক নির্যাতন করেছে, আমাকে হুমকি দিয়েছে এবং যেমন ইচ্ছা তেমন ব্যবহার করেছে।

বিউটি পার্লারের আয় দিয়ে বাবরের পেছনে অনেক টাকা খরচ করেছি। দশ বছরে বাবরকে প্রায় এক কোটি পাকিস্তানি রুপি দিয়েছি। কিন্তু এখনো এক রুপিও ফেরত দেয়নি বাবর।

হামিজার আইনজীবী জানিয়েছেন, অভিযোগ নিয়ে পুলিশ ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কাছে নালিশ করা হয়েছিল। কিন্তু কেউ বিষয়টি আমলে নেয়নি। 

এদিকে বাবর আজমের বিরুদ্ধে এই অভিযোগে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠেছে পাকিস্তানে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস