‘এল ক্ল্যাসিকো’ জিততে মরিয়া জিদান

‘এল ক্ল্যাসিকো’ জিততে মরিয়া জিদান

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৩৮ ২৪ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৭:১২ ২৪ অক্টোবর ২০২০

জিনেদিন জিদান

জিনেদিন জিদান

ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে আকর্ষণীয় লড়াইগুলোর একটি এল ক্ল্যাসিকো। স্পেনের দুই দল রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার মুখোমুখি লড়াই মানেই অন্যরকম এক উত্তাপ। তবে খেলোয়াড়দের পাশাপাশি এল ক্ল্যাসিকোর লড়াইটা দুই দলের কোচের মাঝেও হয়। আজ মৌসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোতে মাঠে নামার আগে যেকোনো মূল্যে ম্যাচটি জিততে চান বলে জানিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান। 

কোচ হিসেবে এটা রোনাল্ড কোম্যানের প্রথম এল ক্ল্যাসিকো। এই ম্যাচ নিয়ে বেশ সতর্ক বার্সেলোনা বস। রিয়াল মাদ্রিদ নিজেদের খেলা সবশেষ দুই ম্যাচে হারলেও তাদের সহজভাবে নেয়ার সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। এদিকে সার্জিও রামোসের ফেরার খবর স্বস্তি দিচ্ছে রিয়াল কোচ জিদানকে। তার লক্ষ্য এল ক্ল্যাসিকো দিয়েই ফের জয়ের ধারায় ফেরা।

মাত্র ৩ মাস আগেও লা লিগার শিরোপা নিয়ে জয়োল্লাস করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু টানা দুই ম্যাচ হেরে নিজেদের যেন হারিয়ে খুঁজছে মাদ্রিদিস্তারা। শুধু একটা জয়ই ভুলিয়ে দিতে পারে সব। আর সেটা যদি হয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা তাহলে তো কথাই নেই। 

একসময় নিজেও রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে খেলেছেন জিদান। তাই এমন একটা ম্যাচের উত্তেজনা স্বাভাবিকভাবেই টের পান তিনি। ডাগ আউটে এবারো তার সময়টা স্বস্তিতে কাটবে না এটা বলাই যায়। তবে দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলেই না ভালো কিছু হয়। তাই স্বাগতিকদের মাঠেই কাতালান বধ করতে চান জিজু।

এ বিষয়ে জিদান বলেন, বার্সেলোনা প্রতিপক্ষ হিসেবে সবসময়ই কঠিন। তাদের কোচ পরিবর্তন হলেও সমস্যা হওয়ার কথা না। তারা সবসময় আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে। আমাদের শেষ দুটি ম্যাচের ফল পক্ষে আসেনি। তবে সেটা মনে করে মাঠে গেলে সবাই আরো ভেঙে পড়বে। অনেক সময় মাঠে পরিকল্পনামাফিক সবকিছু হয় না। আমরা বাজে খেলার কারণেই হেরেছি। এবার বড় মঞ্চ দিয়েই আমরা ঘুরে দাঁড়াতে চাই।

কোম্যান অবশ্য নিজেদের নিয়ে বাজি ধরছেন না। কোচ হিসেবে নিজের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোতে ভালো ফুটবল খেলতে চান তিনি। পরিসংখ্যান কিংবা পূর্ব ম্যাচ রেজাল্ট ধরে কাউকে মূল্যায়ন করতে চান না। ৯০ মিনিটের লড়াইটাই এই ডাচ কোচের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

ম্যাচের আগে বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যান বলেন, আমার মনে হয় রিয়ালের সবশেষ ম্যাচ দুটির ফলাফল এল ক্ল্যাসিকোতে কোনো প্রভাব ফেলবে না। তারা যে মানের খেলা খেলে সেভাবে খেলতে পারেনি। তবে বড় ম্যাচের আগে কিন্তু সবাই মানসিকভাবে শক্ত থাকে। তাদের দলে দারুণ কিছু খেলোয়াড় আছে। আমিও আমার দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে আশাবাদী। সবার মধ্যে জয়ের ক্ষুধা কাজ করছে। আমরা তাদের সঙ্গে শেষ ম্যাচ হারলেও, ঘরের মাঠে এবার আমরা ভালো কিছু করতে চাই।

২০০৮-এর পর টানা দুটি এল ক্লাসিকোতে কখনো হারেনি বার্সা। সবমিলিয়ে আজ দারুণ একটি ম্যাচ হবে এমন আশা করতেই পারেন ফুটবলভক্তরা। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল