সুপার ওভার টাই হলে ম্যাচ নিষ্পত্তির নিয়ম

সুপার ওভার টাই হলে ম্যাচ নিষ্পত্তির নিয়ম

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:২৫ ১৯ অক্টোবর ২০২০  

এই রান আউটই ম্যাচকে নিয়ে যায় দ্বিতীয় সুপার ওভারে

এই রান আউটই ম্যাচকে নিয়ে যায় দ্বিতীয় সুপার ওভারে

এখন পর্যন্ত ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা ম্যাচের উপাধি পেয়েছে ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল। ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডের মাঝে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচ হয়েছিল টাই। এরপর সুপার ওভারও টাই হয়। শেষ পর্যন্ত বাউন্ডারি গণনায় চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড। এই নিয়ম অধিকাংশ ক্রিকেটভক্তেরই পছন্দ হয়নি। ফলে সুপার ওভারে ম্যাচ নিষ্পত্তির নিয়মে আসে পরিবর্তন। 

এদিকে গতকাল (রোববার) রাতে শুধু আইপিএলের ইতিহাসেই নয়, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আর কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মধ্যে ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে বিশ্ব প্রথমবারের মতো এক ম্যাচে দুটি সুপার ওভারের সাক্ষী হয়েছে। টান টান উত্তেজনার দুটি সুপার ওভার শেষে হয়েছে ম্যাচের নিষ্পত্তি। 

এই ম্যাচে প্রথম সুপার ওভারে প্রথমে ব্যাট করে জাসপ্রিত বুমরাজর ছয়টি ডেলিভারিতে ৫ রানের বেশি তুলতে পারেনি পাঞ্জাব। দলটির দুই ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুল এবং নিকোলাস পুরানকে আউট করে স্বল্প রানেই প্রতিপক্ষকে বেঁধে রাখে মুম্বাই। জবাবে মোহাম্মদ শামীর দুর্দান্ত বোলিংয়ে রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি ককও ৫ রানের বেশি তুলতে পারেননি। 

প্রথম সুপার টাই হওয়ায় ইতিহাস তৈরি করে ম্যাচ গড়ায় দ্বিতীয় সুপার ওভারে। এর আগে ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে সুপার ওভার টাই হওয়ায় অনেকেই ভেবেছিল বাউন্ডারি গণনা করেই ফল প্রকাশ হবে। কিন্তু কিছুক্ষণের মাঝেই দেখা যায় ব্যাট হাতে নামেন মুম্বাইয়ের কিরণ পোলার্ড ও হার্দিক পান্ডিয়া। বল হাতে দেখা যায় ক্রিস জর্ডানকে। 

মূলত বিশ্বকাপের সেই বিতর্কের পরই সুপার ওভার ড্র হলে নতুন নিয়ম তৈরি করা হয়। একনজরে দেখে নিন সুপার ওভার টাই হলে কীভাবে ম্যাচের নিষ্পত্তি হবে: 

১. সুপার ওভার টাই বা অমিমাংসিত হলে পুনরায় সুপার ওভার খেলা হবে যতক্ষণ না একজন বিজয়ী নির্ধারিত হচ্ছে।
২. আগের সুপার ওভার শেষ হওয়ার ৫ মিনিটের মাঝেই নতুন সুপার ওভার শুরু করতে হবে।
৩. আগের সুপার ওভারে পরে ব্যাট করা দল পরের সুপার ওভারে প্রথমে ব্যাট করবে।
৪. আগের সুপার ওভার মাঠের যে প্রান্তে শেষ হয়েছিল, পরের সুপার ওভারের বোলিং তার বিপরীত প্রান্ত থেকে শুরু হবে।
৫. আগের সুপার ওভারে আউট হওয়া কোনো ব্যাটসম্যান পরবর্তী সুপার ওভারে ব্যাট করতে পারবে না। 
৬. আগের সুপার ওভারে বল করা বোলার পরবর্তী কোনো সুপার ওভারে বোলিংয়ের সুযোগ পাবেন না।

তীব্র উত্তেজনাপূর্ণ দ্বিতীয় সুপার ওভারে ১১ রান তোলে মুম্বাই। জবাবে ক্রিস গেইল আর মৈনাক আগারওয়ালের ব্যাটে জয় পায় পাঞ্জাব। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল