গাভাস্কারের কুরুচিপূর্ণ কথার কড়া জবাব আনুশকার

গাভাস্কারের কুরুচিপূর্ণ কথার কড়া জবাব আনুশকার

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৪৬ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

টিভিসেটের সামনে ক্রিকেট দেখার ক্ষেত্রে আলাদা মাধুর্য যোগ করেন ধারাভাষ্যকাররা। তাদের কথামালায় মুগ্ধ হন দর্শকরা, খেলা উপভোগ করেন আরো ভালো ভাবে। তবে সেই ধারাভাষ্যকাররাই যদি কুরুচিপূর্ণ, বাজে কথা বলেন সেটা সবার খারাপ লাগা স্বাভাবিক। সম্প্রতি ধারাভাষ্য কক্ষে কোহলি ও আনুশকাকে জড়িয়ে কুরুচিপূর্ণ এক মন্তব্য করেন ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার সুনীল গাভাস্কার। তার এমন মন্তব্যের কড়া জবাব দিয়েছেন কোহলির স্ত্রী ও বলিউড হার্টথ্রব আনুশকা শর্মা। 

গতকালের (বৃহস্পতিবার) ম্যাচে পাঞ্জাব অধিনায়ক লোকেশ রাহুলের দুটি ক্যাচ মিস করেন কোহলি। এছাড়া রান তাড়া করতে নেমে ব্যাট হাতেও তেমন রানও করতে পারেননি তিনি। কোহলি সাজঘরে ফেরার সময় গাভাস্কার হিন্দিতে হেসে হেসে বলেন, ‘ইন হোনে লকডাউন মে তো ব্যাস আনুশকা কি গেন্দ কি প্রাকটিস কি হ্যায়!’ তার এই কথার বঙ্গানুবাদটা অনেকটা এমন- ‘ইনি তো লকডাউনে শুধু আনুশকার বলেরই অনুশীলন করেছেন!’

গাভাস্কারের এই কথা সরাসরি অশ্লীলতার পর্যায়ে পড়ে। তার এমন মন্তব্যে রয়েছে যৌন-শ্লেষ এবং ব্যঙ্গতার ছড়াছড়ি। গাভাস্কারের এই মন্তব্যের সঙ্গে ক্রিকেটের কি সম্পর্ক সেটা বুঝতে পারেননি কেউই। এছাড়া ক্রিকেট মাঠে ব্যর্থতার জন্য কারো পারিবারিক জীবন বা তার স্ত্রীকে টেনে আনার কোন যৌক্তিকতা খুঁজে পাননি খোদ কোহলি পত্নী। 

গাভাস্কারের এমন মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই তাকে ধুঁয়ে দিচ্ছে। এমনকি অনেক দর্শক তাকে স্টার ইন্ডিয়ার কমেন্ট্রি প্যানেল থেকে সরিয়ে দেয়ারও দাবি করেছে। চুপ থাকেননি আনুশকাও। এই বলিউড তারকা গাভাস্কারের উদ্দেশ্যে বেশ বড় একটি বার্তা লিখেছেন। 

ইন্সটাগ্রামে আনুশকা লেখেন, জনাব গাভাস্কার, আপনার কথাটি একদম অখাদ্যের মত ছিল। আপনি কি আমাকে বলতে পারবেন একজন স্ত্রীকে তার স্বামীর ম্যাচে খারাপ করার পেছনে দায় দেয়া কতটা যুক্তিসঙ্গত? আমি নিশ্চিত যে আপনি ধারাভাষ্যের সময় একজন ক্রিকেটারের ব্যক্তিগত জীবনকে এতদিন সম্মান করেই এসেছেন। 

এই বলিউড তারকা আর লেখেন, আপনি কি মনে করেন না যে আমার এবং আমাদের (কোহলি ও আনুশকা) সমান সম্মান পাওয়া উচিৎ? আমি জানি যে আমার স্বামীর গতকাল রাতে খারাপ খেলার পেছনে আপনি আরো অনেক ধরণের বাক্য ব্যয় করতে পারতেন। কিন্তু সেখানে আমাকে জড়িয়ে কী লাভ হয়েছে? এটা ২০২০ সাল এবং আমার এসবে কিছুই যায় আসে না। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল