শেষকৃত্যের ‘উৎসব’-এর গুলিতে জাতীয় দলের ফুটবলারের মৃত্যু

শেষকৃত্যের ‘উৎসব’-এর গুলিতে জাতীয় দলের ফুটবলারের মৃত্যু

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩১ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:৩২ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফুটবল মাঠে মোহামেদ আহমেদ আতাউয়ি (লাল জার্সি)

ফুটবল মাঠে মোহামেদ আহমেদ আতাউয়ি (লাল জার্সি)

মানুষের জীবন কতই না ঠুনকো! কখন কে এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে যাবে তার নিশ্চয়তা নেই। তবে লেবানন জাতীয় দলের ফুটবলার মোহামেদ আহমেদ আতাউয়ির চলে যাওয়ার ধরণটা মেনে নেয়া কিছুটা কষ্টেরই। কারণ হাঁটতে গিয়ে মাথায় গুলি লেগে মৃত্যুবরণ করেছেন তিনি। সেটাও কি না একজন মৃতব্যক্তির শেষকৃত্যের উৎসবের গুলি! 

গতকাল মাত্র ৩২ বছর বয়সে মারা গেছেন আতাউয়ি। আর মাত্র এক মাস বেঁচে থাকলেই ৩৩ বছর পূরণ করতেন তিনি। অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হিসেবে খেলা আতাউয়ি ২০১১ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে লেবানন জাতীয় দলের জার্সিতে তিনটা ম্যাচ খেলেছেন। তার মৃত্যুতে ক্রীড়াঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। এছাড়া প্রশ্ন উঠেছে লেবাননের সংস্কৃতি নিয়েও। 

লেবানন বা এর আশেপাশের দেশের সংস্কৃতিটাই এমন যে, রাস্তায় চলার পথে যে কারো মাথায় বেমক্কা গুলি এসে লাগতে পারে। কারো জন্মদিন বা বিয়ে যাই হোক না কেন, ফাঁকা বাতাসে গুলি ছোঁড়া স্বাভাবিক বিষয়। কোনো রাজনৈতিক নেতা বক্তৃতা দিতে উঠেছেন বা দিয়ে নামছেন, তখনো বাতাসে গুলি! এমনকি কারো মৃত্যুর পরও তাকে সম্মান জানাতে গুলি ছোড়া হয় বাতাসে। এসব গুলি কারো গায়ে লাগছে কি না, সেদিকে কারো ভ্রুক্ষেপ থাকে না। 

আতাউয়ির বেলাতেও এমন ঘটনা ঘটেছে। গত ২১ আগস্ট বাড়ির পাশের রাস্তায় হাঁটতে বেরিয়েছিলেন এই ফুটবলার। তার পাশের এলাকায় তখন মৃত্যুর ‘উৎসব’ পালন করা হচ্ছিল গুলি ছুঁড়ে। সেখানে গত ৪ আগস্ট বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে প্রাণ হারানো একজনের শেষকৃত্য চলছিল। মৃত্যুর কারণে শোক না বলে উৎসব বলার কারণ একটাই, বাতাসে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়া। 

ধারণা করা হচ্ছে, সেই উৎসবেরই একটি গুলি এসে লাগে আতাউয়ির মাথায়। তবে তদন্তে সরাসরি ওই অনুষ্ঠান থেকে আসা গুলিই আতাউয়ির মাথায় লেগেছে বলে এখনো প্রমাণ হয়নি। মাথায় গুলি লাগার পর থেকেই হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যায় ছিলেন আতাউয়ি। তীব্র যন্ত্রণার শেষটা হলো তার চিরবিদায়ে।

আতাউয়ি গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর থেকেই সরকারের কাছে লেবাননে খোলা বাতাসে ফাঁকা গুলি ছোঁড়ায় নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি ওঠে। গতকাল আতাউয়ির মৃত্যুর খবরের পর দেশটির প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন টুইট করেছেন, ‘লেবাননে অনেক তরুণ মারা যাচ্ছে শুধু এই কারণে যে, অনেকেই জানে না তাদের এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন কাণ্ড কী বিপদ ডেকে আনে! আমাদের জাতীয় দলের খেলোয়াড় মোহামেদ আতাউয়িকেও এভাবে মারা যাওয়াদের একজন হতে হলো যা দুঃখজনক।’ 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল