বাজারে ‘আয়রনম্যানের’ পোশাক, সুপারহিরো হয়ে উঠতে পারেন আপনিও!

বাজারে ‘আয়রনম্যানের’ পোশাক, সুপারহিরো হয়ে উঠতে পারেন আপনিও!

‌বিজ্ঞান ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:১৪ ২৯ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২১:১৯ ২৯ এপ্রিল ২০২১

ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

বড়পর্দার সুপারহিরো মানেই যে আলৌকিক ক্ষমতাধর বা কল্পনার চেয়েও বেশি শক্তিশালী কেউ। যখন এসব সুপারহিরোর কাণ্ডকারখানা দেখতে বসেন, তখন হয়তো নিজের অজান্তেই তাদের মতো হতে চান। আসলেই কি সম্ভব? উত্তরটা 'হ্য‌াঁ'! চাইলে আপনি বাস্তবে আয়রনম্যান হতে পারেন।

আয়রনম্যানের সেই বিশেষ যান্ত্রিক পোশাকই আপনার ইচ্ছে পূরণ করতে পারে! শরীরের উপরেই জড়ানো একটি ধাতব পোশাক। তবে শুধুই পোশাক নয়, এটি আসলে এক রোবট। এই পোশাক মানুষের ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয় কয়েক গুণ।

২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত ক্যালিফোর্নিয়ার সংস্থা স্যুট-এক্স নানা পরীক্ষানীরিক্ষার পর অবশেষে ব্যবহারযোগ্য এক্সোস্কেলিটন রোবট তৈরি করতে পেরেছে। এরই মধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে বাজারে এসেছে সেই পোশাক।

প্রতিষ্ঠানটি এই পোশাক বাণিজ্যিকভাবে তৈরির পরিকল্পনা করছে, যা সত্যিই আপনাকে আয়রনম্যান বানাবে! একুশ শতকে এমনটা অবাস্তব তো নয়ই, বরং উন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে এখন মানুষের সাধ্যের মধ্যেই রোবোটিক পোশাক ব্যবহার করতে পারবেন।

এরই মধ্যে মানুষের মধ্যে যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই পোশাক। অত্যাধুনিক পোশাকটিতে যন্ত্রের কাজটা অনেকটাই মানুষের সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়াই ঘটে। শুধু মানুষ পোশাকের ভিতর থেকে সেই কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করবে।  কিছুদিনের মধ্যেই সাধারণ মানুষও এই পোশাক পরতে শুরু করবেন তাতে সন্দেহ নেই।

স্যুট-এক্স সংস্থার কর্ণধার হুমায়ুন কাজেরানির কথায়, এই ধরণের পোশাক তৈরিতে সবচেয়ে বড়ো চ্যালেঞ্জ হল মানুষের পেশির উপর অত্যাচার বন্ধ করা। কারণ যন্ত্র এখানে একা কাজ করে না। যন্ত্রের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কাজ করতে হয় মানুষকে। আর এর ফলেই অনেক সময় পেশিতে টান সৃষ্টি হয়। তবে এই সমস্যারও সমাধান খুঁজে পেয়েছেন স্যুট-এক্স সংস্থার প্রযুক্তিবিদরা।

কলকারখানার শ্রমিক থেকে শুরু করে পর্বতারোহী বা অভিযাত্রী দলের জন্য তারা তৈরি করেছেন বিশেষ বিশেষ পোশাক। কোনো পোশাক মানুষকে ছুটিয়ে নিয়ে যাবে দ্রুতগামী মোটরগাড়ির বেগে। কোনোটা আবার এক ধাক্কায় মানুষকে উড়িয়ে নিয়ে যাবে কয়েক ফুট উপরে। আয়রনম্যানের পোশাকের সঙ্গে সত্যিই যেন কোনো পার্থক্য নেই। জার্ভিসের মতো অসাধারণ না হলেও, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিকাশে প্রযুক্তিবিদরা অনেকটাই এগিয়ে গেছেন।

চাইলে আপনিও হয়ে উঠতে পারেন একজন সুপারহিরো। আর স্যুট-এক্স সংস্থা আশ্বাস দিচ্ছে, তার জন্য আপনাকে খুব মোটা অঙ্কের অর্থ ব্যয় করতে হবে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে