কালই পৃথিবীর ‘কাছ দিয়ে’ উড়ে যাবে বিশাল গ্রহাণু

কালই পৃথিবীর ‘কাছ দিয়ে’ উড়ে যাবে বিশাল গ্রহাণু

বিজ্ঞান ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:২৩ ২০ মার্চ ২০২১  

‘২০০১ এফও ৩২’ নামের গ্রহাণুটি ধেয়ে আসছে। ফাইল ছবি

‘২০০১ এফও ৩২’ নামের গ্রহাণুটি ধেয়ে আসছে। ফাইল ছবি

পৃথিবীর খুব কাছ দিয়ে রোববার উড়ে যাবে একটি গ্রহাণু। আকারে ‘স্ট্যাচু অব লিবার্টি’র প্রায় দ্বিগুণ সমান গ্রহাণুটি ২০ বছর আগে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার গবেষকেরা আবিষ্কার করেন।  অবশ্য গবেষকেরা বলছেন, গ্রহাণুটির পৃথিবীতে আঘাত হানার আশঙ্কা নেই। পৃথিবী নিরাপদ থাকবে।

‘২০০১ এফও ৩২’ নামের গ্রহাণুটির আকৃতি শূন্য দশমিক ৯ কিলোমিটার বা শূন্য দশমিক ৫৬ মাইল প্রস্থ। এটি ঘণ্টায় ৭৭ হাজার মাইল বেগে ছুটে যাবে। ২১ মার্চ গ্রহাণুটিই পৃথিবীর ২০ লাখ কিলোমিটারের মধ্যে চলে আসবে। ফলে মহাকাশ গবেষণার অনেক অজানা তথ্য সামনে আসতে পারে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

গবেষকরা দুই দশক ধরে গ্রহাণুটির অস্তিত্ব সম্পর্কে জানেন। গ্রহাণুটির ব্যাস প্রায় মাইল; তবে এটি নিয়েও বেশ অনিশ্চয়তা থেকে গেছে। আকারে বড় হওয়ায় গ্রহাণুটি সবসময়ই গবেষকদের নজরে থাকে।

আর্থ অবজেক্ট স্টাডিজে’র প্রধান পল খোডাস জানান, এই গ্রহাণুটির কোনোভাবেই পৃথিবীর গায়ে এসে পড়ার আশঙ্কা নেই। পৃথিবী থেকে ২০ লাখ কিলোমিটার দূর দিয়ে যাবে এটি। দক্ষিণ আকাশ দিয়ে যখন এটি ছুটে যাবে তখন এটি সব চেয়ে উজ্জ্বল থাকবে।

ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি দ্বারা পরিচালিত জেট প্রোপালশন ল্যাবরেটরির (জেপিএল) জানিয়েছে, ২০৫২ সালের আগ পর্যন্ত পৃথিবীর কাছাকাছি আর কোনো বৃহদাকৃতির শিলা আসার সম্ভাবনা নেই। তখন এটি পৃথিবী থেকে ২ দশমিক ৮ মিলিয়ন কিলোমিটার বা ১ দশমিক ৭৫ মিলিয়ন মাইল দূরত্বে চলে যাবে।

পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব যতটুকু তারচেয়েও পাঁচগুণ বেশি দূরত্বে অবস্থান করবে গ্রহাণুটি। ফলে আমাদের গ্রহের সঙ্গে এটির সংঘর্ষ বাধার কোনো সম্ভাবনা নেই। তবে এটির কাছাকাছি আসা জ্যোতির্বিদদের এক দূর্লভ জিনিস দেখার সুযোগ এনে দেবে, জেপিএল জানায়।

বিজ্ঞানীরা বলে থাকেন, পৃথিবীর নিকটস্থ মহাকাশ অংশে প্রায় ১৮ হাজার গ্রহাণু ঘুরে বেড়ায়। তার মধ্যে মাত্র এক হাজার ৮০০ গ্রহাণু বিপজ্জনক। এর মধ্যে আবার ১৫০টি অত্যন্ত বিপজ্জনকের পর্যায়ে পড়ে। তবে ধাবমান গ্রহাণুটির উপর বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে