বিএনপি নেতাদের পাবনায় পাঠাতে হবে: ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

বিএনপি নেতাদের পাবনায় পাঠাতে হবে: ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০০:৩২ ১২ জুন ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কথা শুনে বিএনপি নেতাদের মাথা গরম হয়ে গেছে। এদের মাথা ঠান্ডা করার জন্য পাবনায় পাঠানো দরকার বলে মন্তব্য করেছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

শনিবার মুন্সীগঞ্জ জেলার মিরকাদিমে সামরীন  এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লি; এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন,পদ্মা সেতু নির্মাণ করা ছিল অসম্ভব ও দুঃসাধ্য।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন। তিনি দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে পদ্মা সেতু নির্মাণ করে প্রমাণ করেছেন কেউ বাংলাদেশকে দাবায়ে রাখতে পারবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২৫ জুন স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন। এর মাধ্যমে সকল প্রকার  ষড়যন্ত্র বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সততা, দৃঢ়তা, প্রজ্ঞা ও সাহসিকতার কাছে পরাজিত হয়েছে। 

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা এসময় বলেন, পদ্মা সেতুর গুরুত্ব সাধরণ মানুষ জানে, শুধু জানে না খালেদা জিয়া আর মিথ্যা ও অসত্যের কারখানা ফখরুল ইসলাম। খালেদা জিয়া নাকি পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেছিল। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কথা শুনে বিএনপি নেতাদের মাথা গরম হয়ে গেছে। এদের মাথা ঠান্ডা করার জন্য পাবনায় পাঠানো দরকার।  

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা বলেন, আমরা মুন্সীগঞ্জবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি চিরকৃতজ্ঞ। তিনি মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্ত পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন। আমি মুন্সীগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাই। 

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা বলেন, আগে যেসকল পন্য বিদেশ থেকে আমদানি করতে হতো, তা আজ আমাদের দেশেই উৎপাদিত হচ্ছে। পূর্বে বিদেশ থেকে খাদ্য আমদানি করতে হতো, আর এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কৃষি বান্ধব নীতির কারণে বাংলাদেশ খাদ্য উদ্বৃত দেশে পরিণত হয়েছে। একই সাথে বাংলাদেশে কৃষিভিত্তিক শিল্প গড়ে উঠছে। সামরীন এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড কৃষিভিত্তিক শিল্প প্রতিষ্ঠান। যা দেশের খাদ্যপণ্যের বাজারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশা করি। তিনি সরকারের সকল আইন, বিধি, পরিবেশ, নিরাপত্তা ও শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করে আমি কারখানা পরিচালনা করার আহবান জানান।

প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বিকেলে মুন্সিগঞ্জ জেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় পরিদর্শন এবং বিভিন্ন ট্রেডের প্রশিক্ষণার্থীদের সাথে মতবিনিময় করেন।

উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইভিন্স গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিসিআই এর প্রেসিডেন্ট আনোয়ারুল আলম চৌধুরী। এসময় আরো  উপস্থিত ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফরিদা পারভীন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিনহাজ উল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আনিসুজ্জামান আনিস, সদর পৌরসভার মেয়র মো: ফয়সল বিপ্লব ও ডাকসুর সাবেক জিএস ও বাংলাদেশ ছাত্র লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে