পণ্ডিত শিবকুমার শর্মা মারা গেছেন

পণ্ডিত শিবকুমার শর্মা মারা গেছেন

শিল্প ও সাহিত্য ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:০৪ ১০ মে ২০২২  

পণ্ডিত শিবকুমার শর্মা। ছবি: সংগৃহীত

পণ্ডিত শিবকুমার শর্মা। ছবি: সংগৃহীত

হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীতের দিকপাল কলাকার কিংবদন্তি সন্তুরবাদক শিবকুমার শর্মা মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। 

মঙ্গলবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মুম্বাইয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। 

পারিবারিক সূত্রের বরাতে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই এর প্রতিবেদনে বলা হয়, আজ সকাল ৯টার দিকে হার্ট অ্যাটাক হয় শিবকুমার শর্মার। সব কাজকর্ম ঠিকঠাক মতোই করছিলেন তিনি। আগামী সপ্তাহে ভোপালে তার শো ছিল। যদিও তার ডায়ালাইসিস চলছিল; তারপরও সক্রিয় ছিলেন।

উত্তর ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতে ‘সন্তুর’ নামে বাদ্যযন্ত্রটির আগে তেমন মর্যাদা ছিল না। সেই যন্ত্রকে শাস্ত্রীয় সংগীতের মূল ধারায় আনার কৃতিত্ব শিবকুমারের। হরিপ্রসাদের সঙ্গে জুটি বেঁধে শিবকুমার বলিউডের মূল ধারার সিনেমায় কালজয়ী সুর সৃষ্টি করেন। তার মধ্যে অন্যতম ‘সিলসিলা’। তার পুত্র রাহুল বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করেছেন। সন্তুরবাদক হিসেবে তিনিও প্রতিষ্ঠা পেয়েছেন।

১৯৩৮ সালের ১৩ জানুয়ারি জম্মুর একটি সম্ভ্রান্ত সংগীত পরিবারে জন্ম শিবকুমারের। তার বাবা উমা দত্ত শর্মা ছিলেন প্রথিতযশা সংগীতশিল্পী। মাত্র পাঁচ বছর বয়স থেকেই শিবকুমার তার বাবার কাছ থেকে শাস্ত্রীয় সংগীতে প্রশিক্ষণ নেয়া শুরু করেন।

উমা দত্ত শর্মা সন্তুর নিয়ে অনেক গবেষণার পর পুত্রকে ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের সন্তুরবাদক হিসেবে গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেন। তারই ধারাবাহিকতায় মাত্র ১৩ বছর বয়স থেকে শিবকুমারকে সন্তুরের প্রশিক্ষণ দেয়া শুরু করেন। পরবর্তীতে ‘সন্তুর’ যন্ত্রটি নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন শিবকুমার। দেশে-বিদেশে তিনি সন্তুরের অসংখ্য অনুষ্ঠান করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ