রাবির ভর্তি পরীক্ষার যেসব নিয়মে আসেনি পরিবর্তন

রাবির ভর্তি পরীক্ষার যেসব নিয়মে আসেনি পরিবর্তন

রাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:০২ ১৭ এপ্রিল ২০২২  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২৫ জুলাই শুরু হবে। এরইমধ্যে পরীক্ষা পদ্ধতি, আবেদন সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষায় বেশকিছু নিয়মে আনা হয়েছে পরিবর্তন। আর কিছু নিয়ম গত বছরের মতোই অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। যেসব নিয়মে আনা হয়নি কোনো পরিবর্তন তা নিন্মে তুলে ধরা হলো-

সিলেকশন পদ্ধতি
গতবারের ন্যায় এবারও রাখা হয়েছে সিলেকশন পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে প্রথমে প্রাথমিক আবেদন করতে হবে। প্রাথমিক আবেদন থেকে শিক্ষার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক ফলাফলের ভিত্তিতে মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে। প্রাথমিক আবেদনে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা চূড়ান্ত আবেদনের জন্য মনোনিত হবে।

আবেদন ফি
গত বছরের ন্যায় এবারও ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন ফি ৫৫ টাকা এবং চূড়ান্ত আবেদন ফি ১ হাজার ১০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে (মোবাইল ফোন অপারেটরের ১০% সার্ভিস চার্জসহ)।

বহুনির্বাচনী প্রশ্নে পরীক্ষা
বহুনির্বাচনী বা এমসিকিউ পদ্ধতিতে পরীক্ষা হবে। ১০০ নম্বরের পরীক্ষায় মোট ৮০টি বহুনির্বাচনী প্রশ্ন থাকবে, সময় এক ঘণ্টা। প্রতিটি প্রশ্নের মান ১.২৫। প্রতিটি ভুল উত্তরের ০.২০ করে নম্বর কাটা হবে। অর্থাৎ ৫টি ভুল উত্তরের জন্য ১ নম্বর কাটা যাবে। পরীক্ষায় নূন্যতম পাস নম্বর ৪০।

আবেদন যোগ্যতা
আবেদনের যোগ্যতা পূর্বের ন্যায়ই বহাল রাখা হয়েছে। আবেদনকারীদের মানবিক বিভাগ থেকে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩ করে এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় (চতুর্থ বিষয়সহ) জিপিএ ৭.০০, বাণিজ্য বিভাগ থেকে (চতুর্থ বিষয়সহ) ৩.৫০ করে ৭.৫০ এবং বিজ্ঞান বিভাগ থেকে (চতুর্থ বিষয়সহ) ৩.৫০ করে ৮.০০ পেতে হবে। 

বিভাগ পরিবর্তনের সুযোগ
এবারও রাখা হয়েছে বিভাগ পরিবর্তনের সুযোগ। একজন শিক্ষার্থী চাইলেই যোগ্যতা অনুযায়ী ৩টি ইউনিটেই আবেদন করতে পারবে। আবেদনকারী যে ইউনিটে আবেদন করুক না কেন সে যে শাখা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে সেই শাখার জন্য নির্ধারিত যোগ্যতা তার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। এছাড়াও ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.ru.ac.bd থেকে জানা যাবে।

আবেদন
ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হবে আগামী ২৫ মে। চলবে ৯ জুন পর্যন্ত। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক আবেদন সম্পন্ন করতে হবে। প্রাথমিক আবেদন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৫ টাকা। প্রাথমিক আবেদন শেষে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত আবেদনের জন্য মনোনিত করা হবে। উত্তীর্ণ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত আবেদন শুরু হবে ১৫ জুন। চলবে ২৮ জুন পর্যন্ত। চূড়ান্ত আবেদনের ফি ১ হাজার একশত টাকা।

ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি
আগামী ২৫-২৭ জুলাই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২৫ জুলাই ‘সি’ ইউনিট (বিজ্ঞান), ২৬ জুলাই ‘এ’ ইউনিট (মানবিক), ২৭ জুলাই ‘বি’ ইউনিট (বাণিজ্য) ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম