শনাক্তের শেষ পর্যায়ে ‘টিপ পরা’ নিয়ে সেই উত্ত্যক্তকারী, যেকোনো সময় আটক

শনাক্তের শেষ পর্যায়ে ‘টিপ পরা’ নিয়ে সেই উত্ত্যক্তকারী, যেকোনো সময় আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩০ ৩ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ১৬:৩১ ৩ এপ্রিল ২০২২

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

‘টিপ পরা’ নিয়ে রাজধানীতে এক শিক্ষিকাকে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের ইউনিফর্ম পরা এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। উত্ত্যক্তকারী শনাক্তের শেষ পর্যায়ে রয়েছেন। যেকোনো সময় তাকে আটক করা হবে।  

রোববার রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানার ওসি উৎপল বড়ুয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, উত্ত্যক্তের শিকার ঐ শিক্ষিকার দেওয়া মোটরসাইকেলের নম্বরটির শেষের দিক দিয়ে ঠিক ছিল। কিন্তু প্রথম দিক দিয়ে বোঝা যায়নি। তবে আমরা ভুক্তভোগীর বর্ণনা অনুযায়ী ঘটনাস্থলের সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করে বিশ্লেষণ করেছি। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমরা উত্ত্যক্তকারীকে শনাক্তের প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছি। আশা করি, দ্রুত সময়ে এ বিষয়ে আমরা ভালো খবর জানাতে পারব।

তেজগাঁও এলাকায় পুলিশের ইউনিফর্ম পরা এক ব্যক্তি ‘টিপ পরা’ উত্ত্যক্ত করেছেন বলে শনিবার অভিযোগ করেন তেজগাঁও কলেজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষিকা। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি শেরেবাংলা নগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পরে অভিযোগটি নিয়ে তদন্তে নামে পুলিশ।

অভিযোগে বলা হয়, ঐ প্রভাষক সকাল ৮টা ২০ মিনিট থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে ফার্মগেট মোড় পার হয়ে তেজগাঁও কলেজের দিকে যাওয়ার সময় ঘটনাটি ঘটে। সেজান পয়েন্টের সামনে বন্ধ করে রাখা মোটরবাইকের ওপর বসে এক ব্যক্তি বলেন, ‘ওই টিপ পরছোস কেন’। শিক্ষিকা পেছন ফেরে প্রতিবাদ করলে পুলিশের ইউনিফর্ম পরা ঐ ব্যক্তি তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন (লেখার যোগ্য নয়)।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ইভটিজিং করা ঐ ব্যক্তির নাম বা পদবি খেয়াল করতে পারেননি ঐ শিক্ষিকা। তবে গালিগালাজের একপর্যায়ে ঐ ব্যক্তি বাইক স্টার্ট করে প্রায় নারীর গায়ের ওপর দিয়ে বাইক চালিয়ে দিচ্ছিলেন। ঐ নারী পিছিয়ে গেলেও তার পায়ে আঘাত লাগে। বাইকটির নম্বর ১৩৩৯৭০ হতে পারে বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন ঐ শিক্ষিকা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ