যৌন আকর্ষণ থেকেই প্রতিরাতে ৫০ হাজার বেলুনে চুমু খান তিনি

যৌন আকর্ষণ থেকেই প্রতিরাতে ৫০ হাজার বেলুনে চুমু খান তিনি

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫৯ ৩ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ১৫:২৯ ৩ এপ্রিল ২০২২

প্রতিরাতে ৫০ হাজার বেলুনকে চুমু খান তিনি। ছবি: সংগৃহীত

প্রতিরাতে ৫০ হাজার বেলুনকে চুমু খান তিনি। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের অনেকেরই রয়েছে বিচিত্র সব অভ্যাস। অনেকের পছন্দগুলো বিচিত্র, তাদের চিন্তাভাবনাগুলোও বিচিত্র। মানুষ নানা কিছুর প্রতি আকর্ষণ থাকতে পারে। যৌন আকর্ষণও প্রত্যেকের আলাদা। 

সম্প্রতি এমন একজনের গল্প জানা গিয়েছে, যার আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে বেলুন! হ্যাঁ, রং বেরঙের নরম বেলুনের প্রতি যৌনভাবে আকর্ষিত এই ব্যক্তি। জানা যায় তিনি বেলুন দেখে বিচলিত হয়ে যান। কোথাও বেলুন দেখলেই গিয়ে জড়িয়েও ধরেন। TLC-র My Strange Addiction নামের শোতে এসেছিলেন জুলিয়াস নামের এই ব্যক্তি। সেখানেই নিজের অদ্ভুত এই আকর্ষণ বা নেশার সম্পর্কে কথা বলেন তিনি। 

জুলিয়াস জানান, সাধারণত বিপরীত লিঙ্গের বা সমলিঙ্গেরও মানুষের প্রতি যে ধরনের যৌন আকর্ষণ অনুভব করেন কেউ, নরম, আলতো বেলুন দেখলে তার ঠিক একই ধরনের অনুভূতি হয়। বেলুন দেখলেই জড়িয়ে ধরেন জুলিয়াস, বেলুনকে চুমুও খান!

জুলিয়াস জানিয়েছেন, চার বছর বয়স থেকেই এই অদ্ভুত আকর্ষণ টের পান তিনি। সেই সময় এক হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন জুলিয়াস, আর তার মা তাকে নীল রঙের একটি বেলুন দিয়েছিলেন। যখন নার্স সেই বেলুনটি ফাটিয়ে দেন, সারা রাত কেঁদেছিলেন জুলিয়াস। 

তিনি আরো জানান, কোথাও বেলুন ফাটানো হচ্ছে দেখলে প্রচণ্ড কষ্ট হয় তার, সব ভুলে তিনি বেলুন বাঁচাতে পৌঁছে যান। মনোবিজ্ঞানের ভাষায় এই ব্যক্তিদের, যারা বেলুনের প্রতি আকর্ষিত তাদের লুনার বলা হয়।

অনেকেই জেনে অবাক হবেন যে জুলিয়াস নিজের শোয়ার ঘরে ৫০ হাজার বেলুন টাঙিয়ে রেখেছেন এবং প্রতিটা বেলুনের সঙ্গে একটি প্রেমের গল্প জড়িয়ে। বেলুনকে জড়িয়ে ধরলে জুলিয়েয়াসের মনে হয় তার জীবনে আর কোনো কষ্ট নেই। বেলুন জড়বস্তু ঠিকই কিন্তু জুলিয়াসের কাছে তারা ভালোবাসার মানুষের মতোই জলজ্যান্ত। ৬২ বছর বয়সী জুলিয়াসের স্ত্রীও রয়েছে, শুরুর দিকে স্বামীর এই অদ্ভুত আকর্ষণ জেনে অবাকই হয়েছিলেন তিনি। এখন একেবারেই অভ্যস্ত তিনি।

সূত্র: নিউজ ১৮ 

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ/কেবি