স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

নেত্রকোণা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:০৯ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নেত্রকোণায় স্ত্রী নাছরিন আক্তারকে হত্যার অপরাধে মিলন মিয়াকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। সোমবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে নেত্রকোণা জেলা দায়রা জজ মো. শাহজাহান কবির আসামির উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মিলন মিয়া জেলার বারহাট্টা উপজেলার বৃ-কালিকা গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নেত্রকোণা পৌরশহরের সাতপাই এলাকার একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। 

আদালত সূত্রে জানা গেছে, আসামি মিলন মিয়া ২০১৬ সালে নরসিংদী জেলায় একটি ফ্রিজের দোকানে চাকরি করার সুবাদে ওই জেলার শিবপুর উপজেলার তেলিয়া গ্রামের নাজিম উদ্দিনের মেয়ে নাছরিন আক্তারের সঙ্গে পরিচয় ঘটে। একপর্যায়ে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে এবং ২০১৬ সালের ১০ জানুয়ারি মিলন মিয়া ও নাছরিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের পর মিলন মিয়া জানতে পারেন, তার স্ত্রী নাছরিন একজন দেহ ব্যবসায়ী। সেই থেকে তাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটতে শুরু করে এবং প্রায়ই নাছরিন স্বামী মিলন মিয়াকে মারধর করতেন। একপর্যায়ে মিলন মিয়া নাছরিনকে প্রথমে ছুরি দিয়ে বুকে একাধিক আঘাত করেন এবং পরে তাকে গলা কেটে হত্যার পর মরদেহ ধানক্ষেতে ফেলে দেন। 

এ ঘটনায় ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট নেত্রকোণা মডেল থানার এসআই মো. সোলায়মান হক বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত শেষে মিলন মিয়াকে আসামি করে একই বছরের ৮ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালত সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে সোমবার এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলাটির আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. নুরুল কবীর রুবেল এবং রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর ইফতেখার উদ্দিন আহাম্মদ।

ইফতেখার উদ্দিন আহাম্মদ জানান, মামলার রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। এ রায় সমাজে মানুষকে আইনের প্রতি আরও শ্রদ্ধাশীল করে তুলবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম