চাঁদপুরে লঞ্চের ধাক্কায় পন্টুন লণ্ডভণ্ড

চাঁদপুরে লঞ্চের ধাক্কায় পন্টুন লণ্ডভণ্ড

চাঁদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:১৩ ১৩ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৮:১৮ ১৩ জানুয়ারি ২০২২

এম ভি সাব্বির-২ এর ধাক্কায় পন্টুন ভেঙে  লণ্ডভণ্ড। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

এম ভি সাব্বির-২ এর ধাক্কায় পন্টুন ভেঙে  লণ্ডভণ্ড। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চাঁদপুর লঞ্চ ঘাটে যাত্রীবাহী লঞ্চ এম ভি সাব্বির-২ এর ধাক্কায় পন্টুন ভেঙে  লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে। বুধবার রাত সোয়া ১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দক্ষিণাঞ্চলের ঘোষেরহাট থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রা বিরতির সময় রাত সোয়া ১ টার দিকে ২ নম্বর জেটির পন্টুনে স্বজোরে ধাক্কা দেয় যাত্রীবাহী লঞ্চ এম ভি সাব্বির-২। এতে পন্টুন ভেঙে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায়। 

তাৎক্ষণিক চাঁদপুর নৌ থানার অফিসার ইনচার্জ মুজাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে সাব্বির লঞ্চের ৩ জন স্টাফকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে আসে । বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ বন্দরের  পরিবহন পরিদর্শক (টিআই) শাহআলম নৌ থানা থেকে আটকদের ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। তারপর মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে চাঁদপুর ঘাট থেকে সাব্বির লঞ্চটি ছাড়িয়ে দেয় বলে ঘাটের বিভিন্ন লঞ্চের স্টাফ ও সুপার ভাইজাররা জানান।

এম ভি সাব্বির-২ এর ধাক্কায় পন্টুন ভেঙে  লণ্ডভণ্ড

টিআই শাহআলম পরিবহন পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করার সময় লঞ্চে অতিরিক্ত যাত্রী থাকলে ও কম যাত্রী লিখে স্বাক্ষর করে অর্থের বিনিময়ে চাঁদপুর ঘাট থেকে লঞ্চ ছাড়িয়ে দেন বলে অনেক অভিযোগ উঠেছে। লঞ্চে মুল মাস্টার না থাকলেও তিনি পারমিটে স্বাক্ষর করে দ্বিতীয় শ্রেণির মাস্টার দিয়ে লঞ্চ চালানোর অনুমতি দিয়ে থাকেন বলেও অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে। 

এম ভি সাব্বির-২ এর ধাক্কায় পন্টুন ভেঙে  লণ্ডভণ্ড

চাঁদপুর নৌ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, সাব্বির লঞ্চের ৩ জনকে দুর্ঘটনার পর আটক করি। টিআই শাহআলম তাদের ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। তবে এ ব্যাপারে বন্দর কর্তৃপক্ষ আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ দায়ের করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

বৃহস্পতিবার সকালে চাঁদপুর লঞ্চঘাটে গিয়ে দেখা যায় বন্দর কর্মকর্তা কাউসারুল ইসলাম, সিপিও মাহমুদুল হাসান থানদার সাব্বির লঞ্চের স্টাফদের নিয়ে সমঝোতার বৈঠক করে। তাতে সাব্বির লঞ্চের কর্তৃপক্ষ পন্টুন মেরামত করে দিবেন বলে জানান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে