নাসিক নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে: সিইসি

নাসিক নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে: সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৩৭ ১২ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৬:১৮ ১২ জানুয়ারি ২০২২

কে এম নুরুল হুদা- ফাইল ছবি

কে এম নুরুল হুদা- ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে সব রকম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা।

বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জে নির্বাচন পরিস্থিতি দেখতে এসে নগরীর মরগান স্কুলে প্রিসাইডিং ও রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে এ কথা বলেন তিনি।

সিইসি বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে কোনো সমস্যা দেখছি না। নির্বাচনে যে প্রার্থীরা আছেন তারা মৌখিক অভিযোগ ছাড়া কোনো সংঘর্ষে জড়াননি। আমি মনে করি, সংঘর্ষ ছাড়াই এখানে নির্বাচন হবে।

ইভিএম প্রসঙ্গে নুরুল হুদা বলেন, ইভিএম এমন একটা মেশিন যার মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শেষে ১০ মিনিটের মধ্যে ভোট গণনা করা যায়। এটি একটি পরিচ্ছন্ন মেশিন।

নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১৬ জানুয়ারি নাসিক নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। 

নাসিক ভোটের লড়াইয়ে মেয়র, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ও সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন ১৮৯ জন প্রার্থী। এর মধ্যে মেয়র পদে সাত জন, ৯টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ৩৪ জন এবং ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নির্বাচনে মেয়র পদে সাত প্রার্থী হলেন- আওয়ামী লীগের ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা মো. মাছুম বিল্লাহ, খেলাফত মজলিশের এ বি এম সিরাজুল মামুন, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসীম উদ্দিন, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. রাশেদ ফেরদৌস এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকার ও কামরুল ইসলাম।

গত ৩০ নভেম্বর এই সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে কমিশন। ২০১১ সালে সিটি কর্পোরেশন হিসেবে যাত্রা শুরুর পর এবার তৃতীয়বারের মতো ভোট হচ্ছে এই সিটিতে। এর আগে দু’বারই ভোটে জয়ী হন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ/এমএস