ফেসবুক লাইভে এসে এক পরিবারের ৩ জনের আত্মহত্যা!

ফেসবুক লাইভে এসে এক পরিবারের ৩ জনের আত্মহত্যা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৫৪ ৯ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ২০:৫৫ ৯ জানুয়ারি ২০২২

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

মেয়ের নামে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ ওঠায় অপমান সইতে না পেরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লাইভে এসে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন একই পরিবারের তিনজন।

রোববার (৯ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় ভারতের ফ্রেজারগঞ্জ উপকূল থানার বকখালির সমুদ্রসৈকত লাগোয়া জঙ্গলের কাছে এ ঘটনা ঘটে। এর জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওই এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত তিনজন হলেন শ্যামল নস্কর (৫৩), রীতা নস্কর (৪৩) এবং অভিষেক নস্কর (২৫)। 

পশ্চিমবঙ্গে ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি ডায়মন্ড হারবার থানার সুলতানপুরের বাসিন্দা পুনম দাস নামে এক নারীর বিরুদ্ধে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে।

আরো পড়ুন>> কাজাখস্তানে রক্তক্ষয়ী দাঙ্গায় ১৬৪ জন নিহত

এরপর গতকাল (শনিবার) রাতে পুনমের বাড়িতে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর কয়েকজন নারী চড়াও হয়ে বিক্ষোভ করেন। পুনমের সামনেই তার বাবা শ্যামল, মা রীতাকে ভীষণ অপমান করেন ওই নারীরা। এমনকি তাদের মারধর করা হয়। হুমকিও দেওয়া হয়।

শনিবার রাতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করে নস্কর পরিবার। তারপর রোববার সকালে স্ত্রী রীতা ও ছেলে অভিষেককে নিয়ে বকখালির সমুদ্র সৈকতে যান তারা। সেখানে পুনমের ভাই অভিষেকের ফোন থেকে ফেসবুক লাইভ করে আত্মহত্যা করেন তারা। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পুনম বিবাহিতা। পুনমের স্বামী মিঠুন দাস মাছের আড়তের কর্মী।

ঘটনার তদন্তে নেমে পুনম ও মিঠুনকে আটক করেছে পুলিশ। পুনমের বাড়িতে এসে হুমকি দেওয়ায় অভিযুক্ত পাঁচ নারীকেও আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী