দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকের দোয়া 

দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকের দোয়া 

ধর্ম ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:১১ ২৪ ডিসেম্বর ২০২১  

দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকের দোয়া। ছবি: সংগৃহীত

দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকের দোয়া। ছবি: সংগৃহীত

নামাজ মানেই আল্লাহর প্রশংসা। তাই নামাজের প্রত্যেক রুকনে দোয়া, তাসবিহ, তাহলিলের মধ্যে বান্দা আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করতে চায়। এ সব দোয়া ও জিকির কোরআন ও হাদিসে বর্ণিত হয়েছে। দুই সিজদার মধ্যবর্তী বৈঠকেও রয়েছে আল্লাহ তাসবিহ এবং দোয়া।

হজরত ইবনে আব্বার রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, ‘রাসূল ( সা.) দুই সিজদার মাঝে বলতেন-

আরবি উচ্চারণ: اَللّهُمَّ اغْفِرْلِيْ وَارْحَمْنِيْ (وَاجْبُرْنِيْ وَارْفَعْنِيْ) وَاهْدِنِيْ وَعَافِنِيْ وَارْزُقْنِيْ

উচ্চারণ: আল্লা-হুম্মাগফিরলী ওয়ারহামনী ওয়াজবুরনী ওয়াররফা’নী ওয়াহহ্‌দিনী ওয়া আ-ফিনী ওয়ারযুক্বনী।

অর্থ: হে আল্লাহ! আমাকে ক্ষমা কর, দয়া কর, আমার প্রয়োজন মিটাও, আমাকে উঁচু কর, পথ দেখাও, নিরাপত্তা দাও এবং জীবিকা দান কর। (আবূদাঊদ-৮৫০, তিরমিযী-২৮৪, ইবনে মাজাহ্‌-৮৯৮,হাকেম, মুস্তাদরাক)

ক্ষমা, দয়া, সব প্রয়োজন মিটানো, নিচুতা দূর করে উচু করা, সঠিক পথে পরিচালনা করা, নিরাপত্তা দেওয়া, জীবিকা দেওয়া এই সব কিছু প্রতি রাকাত সালাতের ১ সিজদা থেকে উঠে বসে আপনি আল্লাহর কাছে চেয়ে নিতে পারছেন আর সালাতটাই তো মুলত মুনাজাত, অন্য যে কোন সময়ের চেয়ে সলাতের মধ্যে আল্লাহর কাছে দোয়া কবুলের আশা সবচেয়ে বেশি থাকে, আপনি একবার চিন্তা করুন প্রতিদিন এত রাকাত সলাতে আমরা এত বার যদি আল্লাহর কাছে এই দুয়াটা করি আর কোনো এক বারও যদি দয়াময় আল্লাহ সুবহানাহু তা'লা কবুল করে নেন তাহলে দুনিয়া আখিরাতে আমাদের আর কোন অপ্রাপ্তি থাকবে কি?

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ