কনের খবরে দুলাভাইয়ের সঙ্গে বাল্যবিয়ে বন্ধ করল ইউএনও

কনের খবরে দুলাভাইয়ের সঙ্গে বাল্যবিয়ে বন্ধ করল ইউএনও

নোয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:০০ ২০ জুন ২০২১  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর চাটখিলের ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেয়েছে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী। শুক্রবার বিকেলে চাটখিল উপজেলার শাহাপুর ইউনিয়েন ৪নম্বর ওয়ার্ডের প্রসাদপুর গ্রাম এই ঘটনা ঘটে। 

শনিবার রাতে চাটখিলের ইউএনও আবু সালেহ মোহাম্মদ মোসা জানান, শুক্রবার সকালে কনে নিজেই আমাকে বাল্যবিয়ের খবরটি জানায়। খবর পেয়ে বিয়েটি বন্ধ করার জন্য সাহাপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বারসহ চাটখিল থানার পুলিশকে ঘটনাস্থলে পাঠাই। মেয়েটি স্থানীয় সোমপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এই বছর এসএসসি পরীক্ষার্থী। গোপনে ওই ছাত্রীর সঙ্গে তার দুলাভাইয়ের বিয়ের আয়োজন করে পরিবার। 

পরে তারা বাল্যবিয়ে বন্ধ করে মেয়ের বাবাকে চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কার্যালয়ে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মেয়ের বাবাকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয় এবং বিয়ে বন্ধের মুচলেকা আদায় করা হয়। ১৮ বছরের আগে মেয়েকে বিয়ে দিবে না এবং মেয়ের ইচ্ছের বিরুদ্ধে বিয়ে দেয়া যাবে না মর্মে পরিবারের সদস্যরা লিখিত ভাবে অঙ্গীকার নামা প্রদান করে।  

ইউএনও বলেন, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে উপজেলা প্রশাসন সব সময় মাঠ পর্যায়ে খোঁজ খবর রাখছে।  বাল্যবিয়ে বন্ধে সমাজের সব শ্রেণির মানুষ দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখা উচিত।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস