ছাত্রকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষকের সাতদিনের জেল 

ছাত্রকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষকের সাতদিনের জেল 

নান্দাইল প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৩০ ১০ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৫:১০ ১০ মার্চ ২০২১

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ময়মনসিংহের নান্দাইলে এক কওমি মাদরাসা শিক্ষার্থীকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষককে সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নান্দাইল পৌরসদরের বালিয়াপাড়া মহল্লার আমেনা মফিজ নুরুল কুরআন নূরানি ও হাফিজিয়া মাদরাসার নূরানি বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির হোসেনকে পড়া না পাড়ার কারণে বেত দিয়ে শারীরিক নির্যাতন চালায় মাদরাসার শিক্ষক শফিকুল ইসলাম।

সাব্বির পৌরসদরের কাটলিপাড়া গ্রামের জুয়েল মিয়ার ছেলে। 

বাবা জুয়েল মিয়া জানান, ১০ মার্চ সকালে পড়া ভুল হওয়ার কারণে উক্ত শিক্ষক আমার ছেলেকে মারধর করে। খবর পেয়ে আমি মাদরাসায় গিয়ে ছেলের মাথা থেকে পা পর্যন্ত লালচে ফোলা দাগ দেখতে পেয়ে ইউএনও স্যারকে জানাই। 

এ বিষয়ে নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এরশাদ উদ্দীন জানান, শিক্ষক শিশুটিকে শারীরিকভাবে নির্মম নির্যাতন করেছে। আমি তাকে বেতসহ আটক করেছি। মারধরের বিষয়টি কোনোভাবেই কাম্য নয়। তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রোকনউদ্দীন আহামেদ, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আলী ছিদ্দিক। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস