চাকরির প্রলোভনে ধর্ষণ: বিআইডব্লিউটিএ কর্মচারীসহ দুজন রিমান্ডে 

চাকরির প্রলোভনে ধর্ষণ: বিআইডব্লিউটিএ কর্মচারীসহ দুজন রিমান্ডে 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২২ ২ মার্চ ২০২১  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

রাজধানীর সবুজবাগ এলাকায় পোশাক কারখানার এক কর্মীকে (৩৫) চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) কর্মচারী সঞ্জীব কুমার দাস ও তার সহযোগী আনিকার পাঁচদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে আসামিদের হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সবুজবাগ থানার পরিদর্শক আজগর আলী আসামিদের সাতদিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন।

এ সময় আসামি পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করে রিমান্ডের পক্ষে শুনানি করেন। এরপর উভয় পক্ষের শুনানি শেষে তাদের প্রত্যেকে পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, পাঁচ বছর আগে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় তার। এরপর একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ১০ ফেব্রুয়ারি পূর্বপরিচিত সনজিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ হলে কুশল বিনিময়ের সময় তিনি ব্যাংকে ভালো চাকরি দেয়ার কথা বলেন। পরে তাকে মাদারটেকের বাসায় ডেকে নেন। এক পর্যায়ে সেখানে তিনি কয়েকজনের ধর্ষণের শিকার হন। সেখানে উপস্থিত নারী আনিকা এ কাজে তাদেরকে সহায়তা করেন। এ ঘটনা জানাজানি হলে সনজিব ওই নারীকে মেরে ফেলার হুমকি দেন বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গতকাল সোমবার সবুজবাগ থানায়  সনজিবসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ভুক্তভোগী সেই নারী। রাতে মাদারটেক এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে সবুজবাগ থানা পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ