কৃষককে চোর সাজিয়ে গাছে বেঁধে পেটালেন চেয়ারম্যান

কৃষককে চোর সাজিয়ে গাছে বেঁধে পেটালেন চেয়ারম্যান

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৪৭ ২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

চুরির অপবাদ দিয়ে কৃষককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

চুরির অপবাদ দিয়ে কৃষককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

লক্ষ্মীপুরে চুরির অপবাদ দিয়ে কৃষককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে ভুক্তভোগী আমির হোসেন ১০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো আটজনের বিরুদ্ধে এ মামলাটি করেন। মামলায় সদর উপজেলার চররমনী মোহন ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইউছুফ ছৈয়ালকে প্রধান আসামি করা হয়।

আরো পড়ুন: ভেতরে রোগী বাইরে তালা, হঠাৎ ক্লিনিকে এসিল্যান্ড 

এ ঘটনায় বুধবার সকালে অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতাররা হলেন- সাইজ উদ্দিন, দেলু মুন্সি ও জুলহাস। বিকেলে তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানায়, ২৩ আগস্ট রাতে বাড়ি ফিরছিলেন কৃষক আমির। পথে চুরির অপবাদ দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে তাকে আটক করা হয়। এ সময় গাছের সঙ্গে বেঁধে আমিরের ওপর নির্যাতন চালান আসামিরা। একপর্যায়ে চেয়ারম্যান ইউছুফ ছৈয়াল ও ইউপি সদস্য স্বপনকে তারা খবর দেন। চেয়ারম্যান-মেম্বারের উপস্থিতিতে দ্বিতীয় দফায় আমিরকে বেধড়ক মারধর করা হয়। এতে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। পরে আমিরকে মেম্বার স্বপনের বাড়িতে নেয়া হয়। সেখানে সালিশের আয়োজন করেন চেয়ারম্যান ইউছুফ ছৈয়াল। সালিশে আমির ও তার পরিবারের কাছ থেকে অলিখিত স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনরা।

আরো পড়ুন: ভাতিজাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ হারালেন চাচিও

স্থানীয়দের অভিযোগ, চররমনী মোহন ইউপির চরআলী হাসান গ্রামের কয়েকজন কৃষকের জমি দখলের চেষ্টা করেন চেয়ারম্যান ইউছুফ ছৈয়াল। কিন্তু কৃষকরা বাধা দেয়ায় জমি দখল করা সম্ভব হয়নি। এরই জেরে গ্রামের কৃষক আমিরকে চুরির অপবাদ দিয়ে পরিকল্পিতভাবে পেটানো হয়।

আরো পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় লাশ হলেন দুই নারী

অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইউসুফ ছৈয়াল বলেন, আমি কারো জমি দখল করতে যাইনি। আমার বিরুদ্ধে এটি ষড়যন্ত্র।

সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোসলেহ উদ্দিন বলেন, কৃষককে মারধরের ঘটনায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর