মিন্নিসহ ৯ আসামির উপস্থিতিতে যুক্তিতর্ক শুরু

রিফাত শরীফ হত্যা

মিন্নিসহ ৯ আসামির উপস্থিতিতে যুক্তিতর্ক শুরু

বরগুনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৫৪ ২৬ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৭:০০ ২৬ আগস্ট ২০২০

আদালতে প্রবেশ করছেন রিফাত শরীফের স্ত্রী মিন্নি

আদালতে প্রবেশ করছেন রিফাত শরীফের স্ত্রী মিন্নি

বরগুনায় চাঞ্চল্য শাহনেওয়াজ রিফাত ওরফে রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হয়েছে। এ সময় নিহতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ৯ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে বরগুনা জেলা জজ আদালতের বিচারক মো. আসাদুজ্জামানের আদালতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হয়। প্রথমদিন তদন্তকারী কর্মকর্তার প্রতিবেদন, ঘটনার দিন ভাইরাল হওয়া সিসিটিভি ফুটেজ থেকে প্রাপ্ত তথ্য, আসামিদের স্বীকারোক্তির ওপর যুক্তিতর্ক উপস্থান করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ভূবন চন্দ্র হাওলাদার।

এর আগে, সকাল ১০টায় চাঞ্চল্যকর এ মামলার ৮ আসামিকে বরগুনা জেলা কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর হাজির হন এ মামলায় স্বাক্ষী থেকে আসামি হওয়া মিন্নিও। দুপুর ১টার দিকে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন কার্যক্রম মুলতবি করেন বিচারক। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় পুনরায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হবে।

ভূবণ চন্দ্র হাওলাদার বলেন, আমরা পুলিশ প্রতিবেদনের যৌক্তিকতা, সিসিটিভি ফুটেজ থেকে প্রাপ্ত তথ্য ও আসামিদের স্বীকারোক্তির ওপর যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেছি। আরো কিছু বিষয়ের ওপর আগামীকাল যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করবো। রোববার আসামীপক্ষের আইনজীবীদের যুক্তি খণ্ডন ও বক্তব্য উপস্থাপনের সম্ভাবনা রয়েছে।

২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে নয়ন বন্ড ও তার সহযোগীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত করে। এরপর বীরদর্পে অস্ত্র উঁচিয়ে এলাকা ত্যাগ করে তারা। ওইদিন বিকেলে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান গুরুতর আহত রিফাত। এ ঘটনায় মামলা করেন নিহতের বাবা।

ওই বছর ১ সেপ্টেম্বর চাঞ্চল্যকর এ মামলায় মিন্নিসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে বরগুনা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ। মামলার এক নম্বর আসামি নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ায় তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়। চলতি বছরের ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে জেলা ও দায়রা জজ আদালত। ৮ জানুয়ারি অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বরগুনা শিশু আদালত।

এ মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রাপ্তবয়স্ক আসামি মো. মুসা এখনো পলাতক রয়েছেন। এছাড়া নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রী মিন্নিসহ অপ্রাপ্তবয়স্ক ৮ আসামি উচ্চ আদালত ও বরগুনা শিশু আদালতের আদেশে জামিনে রয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর