বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার অনশন, পালালেন প্রেমিক

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার অনশন, পালালেন প্রেমিক

জামালপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০২:০৫ ১৯ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ১২:৫৪ ১৯ এপ্রিল ২০২০

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে এক তরুণী চারদিন ধরে অনশন করছেন। উপজেলার ডোয়াইল ইউপির রায়দের পাড়ার প্রেমিক বাবু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

বাবু ওই এলাকার শাহ আলমের ছেলে। দুই বছর ধরে একই এলাকার ওই তরুণীর সঙ্গে তার প্রেম চলছে। বিয়ের আশ্বাসে ওই তরুণীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কেও লিপ্ত হন প্রেমিক। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় মাতব্বরকে জানান ভুক্তভোগীর স্বজনরা।

এদিকে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ওই তরুণীর সঙ্গে বিয়ের আশ্বাস দেন বাবুর পরিবার। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরেই পরিবারটি কালক্ষেপণ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার রাত থেকে বাবুর বাড়িতে অনশনে রয়েছেন ওই তরুণী। তার আসার খবর পেয়ে পালিয়ে যান প্রেমিক বাবু।

এ ব্যাপারে এলাকার মাতব্বর ফরিদ মিয়া, আব্বাস, লিটন, মজনু মিয়া, খোকা মিয়া, রফিকুল ইসলাম, মন্টু মিয়া কয়েক দফায় ‍সালিশ করেও কোনো সমাধান দিতে পারেননি।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, তাদের শারীরিক সম্পর্কে সহযোগিতা করেন বাবুর ভাবি ছফুরা আক্তার। বিষয়টি কিছু জায়গায় জানাজানি হয়। পরে বাবুকে বিয়ের কথা বললেই নানা কারণ দেখান। তাই অনশনে রয়েছেন তিনি। বিয়ে না করা পর্যন্ত প্রেমিকের বাড়ি থেকে যাবেন না। 

ভুক্তভোগীর বাবা জানান, তার মেয়েকে ওই বাড়ি থেকে বের করে দিতে মারধরসহ মানসিক নির্যাতন করছেন বাবুর ভাবি ছফুরা ও বোন জুলেখা। গরিব হওয়ায় কয়েক দফায় সালিশ হলেও কোনো বিচার পাননি বলে তার অভিযোগ।

অভিযুক্ত বাবু মিয়ার ভাবি ছফুরা বলেন, বাবু কোথায় গেছে জানা নেই। তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি। তাই বিয়েও দেয়া যাচ্ছে না।

ডোয়াইল ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন রতন বলেন, বিয়ের দাবিতে বাবুর বাড়িতে অনশনে রয়েছেন ওই তরুণী। তবে বাবুকে অন্যত্র বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন স্বজনরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/আরএম