এলাকায় নতুন দেখে বনকর্মীকে পেটালেন মৎস্য ব্যবসায়ী

এলাকায় নতুন দেখে বনকর্মীকে পেটালেন মৎস্য ব্যবসায়ী

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:০০ ১২ এপ্রিল ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বাগেরহাটের শরণখোলায় এক মৎস্য ব্যবসায়ীর মারধরের শিকার হয়েছেন আব্দুল আজিজ নামে এক বনকর্মী। করোনাভাইরাস আতঙ্কে এলাকায় নতুন দেখে ওই বনকর্মীকে মারধর করা হয়েছে বলে জানান মৎস্য ব্যবসায়ী।

বন-বিভাগ জানায়, শুক্রবার বিকালে পুর্ব সুন্দর বনের চাঁদপাই রেঞ্জের কলম তেজী  টহল ফাঁড়ির বনকর্মী (বোর্টম্যান) আব্দুল আজিজ বন সংলগ্ন বটতলা বাজারে যায়। এ সময় স্থানীয় বাসিন্দা মো. মোশারফ হোসেন তালুকদারের ছেলে প্রভাবশালী মৎস্য ব্যবসায়ী মো. কামাল হোসেন তালুকদার ওই বনকর্মীর নাম জানতে চান। এ সময় তিনি বন বিভাগের লোক বলে পরিচয় দিলেও কামাল ও তার কয়েকজন সহযোগী ওই বনকর্মীকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ শুরু করেন। এতে তিনি  প্রতিবাদ জানালে  তাকে চোর আখ্যা দিয়ে মারধর করেন ব্যবসায়ী কামালসহ তার সহযোগীরা।

এ সময় তারা আজিজের গায়ের শার্ট ছিড়ে ফেলে। পরে তিনি ক্যাম্পে ফিরে গেলে মারধরের বিষয়টি বনের  ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা  জানতে পারেন ।

এ বিষয়ে চাঁদ পাই রেঞ্জের এসিএফ মো. এনামুল হক বলেন, ওই বনরক্ষীকে মারধরের বিষয়টি শুনেছি। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। তবে, অভিযুক্ত মৎস ব্যবসায়ীর বিরুদ্বে আইনগত পদক্ষেপ নেয়ার জন্য ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা মো. ছিদ্দিকুর রহমানকে নির্দেশ দেয়া  হয়েছে।

এ বিষয়ে  বনকর্মী আ. আজিজ  মারধরের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, সালিশ বৈঠকে কামাল তার অপরাধের কথা স্বীকার করে আমার কাছে ক্ষমা চাওয়ায় সবার অনুরোধে তাকে ক্ষমা করে দিয়েছি। তবে, স্টেশন কর্মকর্তা ছিদ্দিকুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিক বার ফোন করা হলেও তিনি তা রিসিভ না করায় তার বক্তব্য মেলেনি ।

অপরদিকে, পুর্ব বন বিভাগের ডিএফও মো. বেলায়েত হোসেন জানান, সামান্য ব্যাপারে উভয়ের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। বিষয়টি শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে ধানসাগর স্টেশনের এসও বিষয়টি মীমাংমা করে দিয়েছেন  এবং  ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ড  করবেন না  মর্মে ওই ব্যবসায়ী একটি  মুচলেকা দিয়েছেন।

ব্যবসায়ী মো. কামাল হোসেন তালুকদার বলেন, দেশের করোনাভাইরাসের কারণে ওই বনকর্মীকে এলাকায় নুতন দেখে তার পরিচয় জানতে চাইলে তিনি পাল্টা প্রশ্ন করেন। এ নিয়ে  দু’জনের মধ্যে একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়। কিন্তু মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। এছাড়া  বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়ে গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ