রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের আরো কিছু যন্ত্রাংশ প্রস্তুত

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের আরো কিছু যন্ত্রাংশ প্রস্তুত

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:৪০ ৩ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:৫৬ ৩ ডিসেম্বর ২০২০

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণকাজ চলছে- ফাইল ছবি

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণকাজ চলছে- ফাইল ছবি

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের প্রথম ইউনিটের রিয়্যাক্টর ভেসেলের আরো কিছু যন্ত্রাংশ প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন ও যন্ত্রাংশ তৈরিকারী রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি কর্পোরেশনের (রোসাটম) যন্ত্র প্রকৌশল শাখায় এসব যন্ত্রাংশ তৈরি হয়। 

বুধবার রোসাটম থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের অভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশের মধ্যে ১১ মিটার কোর ব্যারেল, কোর বাফেল এবং প্রটেক্টিভ টিউব ইউনিট রয়েছে। এসব যন্ত্রাংশের মোট ওজন ১৭৯ টন।

রিয়্যাক্টর কোর ভেসেলের অভ্যন্তরীণ যন্ত্রসমূহ রাশিয়ার নেস্টিং পুতুল “মাতৃওস্কার” (কৃষাণী রূপের একটি সুদৃশ্য কাপড়  পরিহিতকাঠের পুতুল) দিয়ে সাজানো থাকে এবং রিয়্যাক্টর কভারের গায়ে তা অত্যন্ত নিখুঁত ও শক্তভাবে সংযোজন করা থাকে।

উল্লেখ্য, অভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশগুলো দিয়ে  রিয়্যাক্টরকে কুল্যান্ট প্রবাহ থেকে আলাদা করার পাশাপাশি এর অভ্যন্তরে জ্বালানি রাখার পাশাপাশি রিয়্যাক্টর নিয়ন্ত্রণ ও সংরক্ষণের ব্যবস্থাও রয়েছে।  ভবিষ্যতে এ অভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশ বিদ্যুৎকেন্দ্রের যন্ত্রাংশের অ্যাসেম্বলির সময় সংক্ষেপণ করবে।

চলতি বছরেই রাশিয়ার এইএম টেকনোলজির ভল্গোদনস্ক শাখা থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট-১ এর জন্যে রিয়্যাক্টর ও চারটি স্টিম জেনারেটর পাঠানো হয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানটি রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য প্রস্তুত করছে অভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশ, রিয়্যাক্টর কভারের আপার ইউনিট, আটটি জেনারেটরসহ দু’টি রিয়্যাক্টর।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, রিয়্যাক্টর একটি লম্বা সিলিন্ডার আকৃতির পাত্র।  এর নিচ উপবৃত্তাকার এবং এর অভ্যন্তরে কোর ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ থাকে। ভিভিইআর ১২০০ রিয়্যাক্টর’র ওজন প্রায় ৩৩০ টনের বেশি, উচ্চতা ১৩ মিটার ও ব্যাসার্ধ ৪ দশমিক ৫ মিটার। রিয়্যাক্টরটির ওপরের অংশ কভারের সঙ্গে আবদ্ধ অবস্থায় থাকে এবং এর সঙ্গে ড্রাইভ মেকানিজম, রিয়্যাক্টর’র কন্ট্রোল, প্রটেকশন রড এবং কোর যন্ত্রপাতি বাইরের ক্যাবলের নজেল থাকে। রিয়্যাক্টর কাভারটি ভেসেলের গায়ে ফেনার মতো আটকে থাকে। রিয়্যাক্টর’র ওপরের অংশে কুল্যান্ট ইনলেটের নজেল থাকে এবং জরুরি মুহূর্তের সার্কিট লিকেজের জন্যও ইমার্জেন্সি কুল্যান্ট নজেল থাকে।

এর আগে ১৯ অক্টোবর রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের মূল যন্ত্রাংশ নিউক্লিয়ার রিয়্যাক্টর প্রেসার ভেসেল বা পারমাণবিক চুল্লি এবং একটি স্টিম জেনারেটর রাশিয়া থেকে দেশে পৌঁছায়।

উল্লেখ্য, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের প্রথম ও দ্বিতীয় ইউনিট যথাক্রমে ২০২৩ ও ২০২৪ সাল থেকে কার্যকর হবে। এ বিদ্যুৎকেন্দ্রের রিয়্যাক্টর ও স্টিম জেনারেটরগুলো এইএম টেকনোলজি প্রস্তুত করছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ/এইচএন/জেডআর