‘ভ্যাকসিনে গুণী সংস্কৃতিসেবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে’

‘ভ্যাকসিনে গুণী সংস্কৃতিসেবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:২১ ২৮ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:২৩ ২৮ নভেম্বর ২০২০

রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিআরএ) প্রতিষ্ঠার ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ‘রজত জয়ন্তী উৎসব’ আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ

রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিআরএ) প্রতিষ্ঠার ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ‘রজত জয়ন্তী উৎসব’ আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেশে আসার পর প্রথম ধাপে দেশবরেণ্য গুণী সংস্কৃতিসেবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

শনিবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিআরএ) প্রতিষ্ঠার ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ‘রজত জয়ন্তী উৎসব’ আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ কথা জানান। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অনলাইনে বক্তব্য দেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া।

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনাকালে আমরা সংস্কৃতি জগতের অনেক গুণী শিল্পী-সাহিত্যিক-সংস্কৃতিসেবীদের হারিয়েছি। গুণী সৃজনশীল এসব ব্যক্তি দেশ ও জাতির বিবেকস্বরূপ। সমস্যা, সংকট, সম্ভাবনায় জাতিকে সঠিক দিকনির্দেশনা দিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে সহায়তা করেন তারা। করোনার ভ্যাকসিন দেশে এলে প্রথম ধাপে এসব দেশবরেণ্য গুণী সংস্কৃতিসেবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

তিনি বলেন, শিল্পীর আসল পরিচয় তিনি শিল্পী। শিল্পী চলচ্চিত্র, সঙ্গীত, নাটক বা সংস্কৃতির যেকোনো অঙ্গনেরই হোন না কেন, বর্তমান সরকার তাদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। সে লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদানে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে গড়ে তোলা হয়েছে ‘শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট’। অন্যদিকে তথ্য মন্ত্রণালয়ে চলচ্চিত্র শিল্পীদের জন্য গড়ে তোলা হয়েছে ‘চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট’।

বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিআরএ) সভাপতি অভি চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন নাট্যজন আতাউর রহমান ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মাকছুদুর রহমান পাটোয়ারী।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ