দেশের ইতিহাসে প্রথম একযোগে এত পুলিশ বদলি

দেশের ইতিহাসে প্রথম একযোগে এত পুলিশ বদলি

এইচএম ফরিদুল আলম শাহীন, কক্সবাজার ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:২৬ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:২৯ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দেশের ইতিহাসে এই প্রথম কক্সবাজার জেলা থেকে ১৩৪৭ পুলিশ সদস্যকে একযোগে বদলি করা হয়েছে। এরমধ্যে আট থানার ওসি, ৫৩ জন পরিদর্শক, ১৩৯ জন এসআই, ৯২ জন এএসআই ও এক হাজার ৫৫ জন নায়েব ও কনস্টেবল রয়েছেন।

পুলিশ সদর দফতরের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (প্রশাসন) ড. মো. মইনুর রহমান চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাদের বদলি করা হয়।

বদলিকৃতদের আগামী ২৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পুরনো কর্মস্থল ছেড়ে দিতে হবে এবং ৩০ সেপ্টেম্বর তাদের একটি ব্রিফিংয়ে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। সেদিন রাজারবাগের পুলিশ অডিটরিয়ামে তাদের পোশাক পরে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সম্মতিক্রমে পুলিশ সদস্যদের পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত জনস্বার্থে পুলিশের বিভিন্ন রেঞ্জে বদলি করা হয়েছে।

এদিকে বদলির ছোঁয়া লাগেনি পিবিআই, এপিবিএন, পিআইবি ও ট্যুরিস্ট পুলিশসহ এপিবিএন- এর দুইটি ব্যাটালিয়ন মিলে ছয়টি ইউনিটে।

কক্সবাজারের এসপি মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান জানান, ঢাকায় পুলিশ সদর দফতর সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে পুলিশের সম্পূর্ণ নতুন সেট কক্সবাজারে আসবে। আর এখানে যারা এতদিন কর্মরত ছিলেন তারা অন্যত্র যাবেন। তিনি নিজেও একদিন আগে (বৃহস্পতিবার) এ জেলায় এসপি হিসেবে যোগ দিয়েছেন।

পুলিশের এমন বদলিকে মানুষ ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। এর আগে তদবির-বাণিজ্যের মাধ্যমে অনেক কর্মকর্তা কক্সবাজার জেলার এক থানা থেকে আরেক থানায় দায়িত্ব পালন করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। যেমন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ উখিয়া থানা, কক্সবাজার সদর মডেল থানা, মহেশখালী থানা ও সবশেষ টেকনাফ থানায় দায়িত্ব পালন করেছেন।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার নতুন করে কক্সবাজারের আট থানাসহ বিভিন্ন পর্যায়ে দায়িত্বে থাকা ১৩৯ জন এসআই, ৯২ জন এএসআই, এক হাজার ৫৫ জন নায়েব ও কনস্টেবলকে বিভিন্ন রেঞ্জে বদলি করা হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার বদলি করা হয়েছে ৫৩ জন পরিদর্শককে। বদলি হওয়া শূন্য পদ পূরণে শুক্রবার চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ে যোগ দিচ্ছেন ৫৩ জন পরিদর্শক, ২১৫ জন এসআই-এএসআই ও ৭৩৪ জন কনস্টেবল।

কক্সবাজারে নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত আট থানার ওসিরা হলেন- সাতক্ষীরা থেকে শেখ মুনির উল গিয়াস, সিরাজগঞ্জ থেকে মো. হাফিজুর রহমান, সুনামগঞ্জ থেকে আহম্মদ সনজুর মোরশেদ, নওগাঁ থেকে মো. আব্দুল হাই, গোপালগঞ্জ থেকে শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের, নীলফামারী থেকে কেএম আজমিরুজ্জামান, ডিএমপি ঢাকা থেকে মো. সাইফুর রহমান মজুমদার ও মৌলভীবাজার থেকে মো. জালাল উদ্দিন।

এছাড়া কক্সবাজার জেলার জন্য যে ২৯ জন পুলিশ পরিদর্শক পোস্টিং হয়েছেন তারা হলেন- ঢাকা থেকে কানন সরকার, পিবিআই ঢাকা থেকে শেখ মো. আলী, মানিকগঞ্জ থেকে নুর মোহাম্মদ, মুন্সিগঞ্জ থেকে গাজী সালাউদ্দিন, রাজশাহী থেকে মো. আনোয়ার হোসেন, ফরিদপুর থেকে মো. আশরাফ হোসেন, বাগেরহাট থেকে মো. মাহতাবুর রহমান, বাগেরহাট থেকে মো. সেলিম উদ্দিন, কুষ্টিয়া থেকে আবদুল আলীম, রাজশাহী থেকে ফরহাদ আলী, বগুড়া থেকে আশিক ইকবাল, পিরোজপুর থেকে কামাল হোসেন, মৌলভীবাজার থেকে অরুপ কুমার চৌধুরী, সিলেট থেকে মো. লুৎফুর রহমান, গাইবান্ধা থেকে মো. এমরানুল কবির, পঞ্চগড় থেকে মো. রবিউল ইসলাম, ময়মনসিংহ থেকে খোরশেদ আলম, শেরপুর থেকে মো. আশরাফুল কবির খান, নেত্রকোনা থেকে আনসারুল ইসলাম, সিআইডি ঢাকা থেকে মো. নাজমুল আলম চৌধুরী, এসবি ঢাকা থেকে মো. রুকনুজ্জামান, এসবি ঢাকা থেকে মাসুদুর রহমান, এসবি ঢাকা থেকে হাবিবুর রহমান, পিবিআই ঢাকা থেকে মো. জুয়েল ইসলাম, সিআইডি ঢাকা থেকে এবিএম মাইনুল হাসান, সিআইডি ঢাকা থেকে মো. আবদুল হালিম, সিআইডি ঢাকা থেকে বিপুল চন্দ্র দে, নারায়ণগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ থেকে চন্দন কুমার চক্রবর্তী ও পিবিআই ঢাকা থেকে ওয়ালী উদ্দিন আকবর।

এরআগে, কক্সবাজারের এসপি এবিএম মাসুদ হোসেনকে রাজশাহীর এসপি হিসেবে বদলি করা হয়। অন্যদিকে ঝিনাইদহের এসপি মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান কে কক্সবাজারে এসপির দায়িত্ব দেয়া হয়। নবাগত এসপি বৃহস্পতিবার দায়িত্ব নেন।

কক্সবাজারের অ্যাডিশনাল এসপি (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইনকে ডিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, সদর সার্কেলের অ্যাডিশনাল এসপি মো. আদিবুল ইসলামকে মুন্সিগঞ্জের অ্যাডিশনাল এসপি, কক্সবাজার সদরের অ্যাডিশনাল এসপি মো. রেজওয়ান আহমেদকে গাজীপুর জিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এবং মহেশখালী সার্কেলের এএসপি রতন কুমার দাশ গুপ্তকে চট্টগ্রামে নবম এপিবিএনের এএসপির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর