যেমন হতে পারে শীতের ফ্যাশন

যেমন হতে পারে শীতের ফ্যাশন

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৩৮ ৫ ডিসেম্বর ২০২১  

শীতের ফ্যাশন। ছবি : সংগৃহীত

শীতের ফ্যাশন। ছবি : সংগৃহীত

শীতকাল আসা মানেই পার্টি, প্রোগ্রাম, পিকনিক ও ট্যুরের প্রকৃত সময়। এ সময়ে প্রয়োজন পড়ে ফ্যাশনের নতুনত্ব। আপনি তখনই পার্টির মধ্যমণি হতে পারবেন যখন আপনার ফ্যাশন এবং স্টাইল সেন্স হবে সবার চেয়ে ভিন্ন। তবে মনে রাখবেন, শীতকালের ফ্যাশন গরম কালের মতো যেন না হয়।

আজকে আলোচনা হোক শীতের ফ্যাশন ও চালচলন নিয়ে।

পোশাকের রং
শীতে পোশাকের রং বাছাই এর ক্ষেত্রে গাঢ় রং কে প্রাধান্য দিন। গরমে হালকা রং আরামদায়ক হলেও শীতে নজর কাড়ার জন্য গাঢ় রং পারফেক্ট। সেক্ষেত্রে ওয়াইন কালার, গাঢ় মেরুন, ব্ল্যাক,ডিপ কফি কালার, গাঢ় বেগুনি, পার্পল কালারের পোশাক পরতে পারেন। এমন পোশাক সবার কাছে আপনাকে আকর্ষণীয় করে তুলবে।

অনুষ্ঠান বুঝে পোশাক

আপনার পোশাক কেমন হবে তা নির্ভর করবে আপনি কোন অনুষ্ঠান বা পার্টিতে যাচ্ছেন তার উপর। আপনি যদি অফিস পার্টিতে যান তাহলে মেয়েরা লং গাউন, স্কার্ট, চুড়িদারের সঙ্গে লং কামিজ পরতে পারেন। এ ছাড়া জিন্সের সঙ্গে ব্লেজার পরতে পারেন। ছেলেরা পরতে পারেন ডিপ কালারের শার্টের সঙ্গে ব্লেজার বা কোর্ট।

বিয়ে বা অন্য সামাজিক অনুষ্ঠানে শাড়ি, কামিজ বা লেহেংগার সঙ্গে ম্যাচ করে কাশ্মীরি শাল পরতে পারেন। ছেলেরা পাঞ্জাবীর সঙ্গে ম্যাচ করে শাল পরতে পারেন। পিকনিক বা ট্যুরে ছেলে-মেয়ে উভয়ই জিন্স ব্লেজার, কানটুপি, মাফলার পরতে পারেন। এগুলো যেমন আরামদায়ক তেমনি দেখতেও মানানসই।

চুলের স্টাইল

শীতে অফিসে মেয়েরা চুল হালকা ফুলিয়ে বাধতে পারেন। পার্টিতে চুল খোলা রাখতে পারেন। বিয়ের অনুষ্ঠানে খোপা করতে পারেন। ছেলেরা অফিসে নরমাল হেয়ারস্টাইল ও পার্টিতে ব্যাকব্রাশ করতে পারেন।

পোশাকের মতোই মানানসই শীত পোশাক

আপনার মূল পোশাকের সঙ্গে মানানসই শীতের পোশাক পরুন। যেমন শাড়ির সঙ্গে শাল, জিন্সের সঙ্গে সোয়েটার বা ব্লেজার,ফর্মাল প্যান্টের সঙ্গে ফর্মাল কোর্ট বা ব্লেজার, গ্যাভাডিনের সঙ্গে ওভারকোর্ট,পাঞ্জাবীর সঙ্গে শাল পরলে ভালো মানাবে। পোশাকের কম্বিনেশন ঠিক না হলে তা হাস্যকর দেখাতে পারে।

জুতা

শীতকালে যথাসম্ভব পা ঢাকা জুতা পরুন। এতে করে পা ফাটার সমস্যা থেকে মুক্ত থাকা যাবে। পায়ে ঠাণ্ডাও লাগবে না। মেয়েরা কেডস, পার্টি সু, অফিসে নর্মাল সু, অনুষ্ঠানে বুট বা উঁচু হিলের সু পরতে পারেন। ছেলেরা এ সময়ে কেডস বা উঁচু হিলের জুতা পরতে পারেন।

হাসি

আপনার পোশাক, হেয়ারস্টাইল, জুতা এগুলো বাহ্যিক সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করে। কিন্তু আপনার প্রকৃত সৌন্দর্য নির্ভর করে আপনার আত্মবিশ্বাস ও হাসিতে। আপনার হাসিই আপনাকে সবার চোখে আলাদা করে তুলবে। তবে হাসিটি যেন মেকি না হয়। হাসি হতে হবে মন থেকে। তাহলেই সবার মধ্যমণি হতে পারবেন আপনি।

 

ডেইলি বাংলাদেশ/কেবি