গাঢ় স্ট্রেচ মার্কের দাগ দূর হবে তিন মাসেই

গাঢ় স্ট্রেচ মার্কের দাগ দূর হবে তিন মাসেই

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:০৭ ২৫ নভেম্বর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

শরীর একটু ভারী হলেই স্টেচ মার্ক বেড়ে যায় অনেকের। নারী বা পুরুষ সবারই এই সমস্যা হতে পারে। আবার অনেক শিশু, যার ওজন একটু বেশি তাদের শরীরেও স্ট্রেচ মার্ক পড়তে পারে।  

আবার গর্ভাবস্থায়র মায়ের মানসিক ও শারীরিক পরিবর্তন ঘটে। তখনই পেটে স্ট্রেচ মার্কের দাগ পড়ে। এই সময় মায়েরা অন্তত ১০-১৫ কেজি ওজন বেড়ে যায়। তবে চিন্তা নেই, আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে এমন কিছু চিকিৎসার বিষয়ে লেখা আছে যা অনুসরণ করলে এইসব স্ট্রেচ মার্ক একেবারেই কমিয়ে ফেলা সম্ভব। 

ওষুধ বানাতে প্রয়োজনীয় উপকরণ- অ্যালোভেরার রস ২ চামচ, হলুদ ১ চামচ, ক্যাস্টর অয়েল ১ চামচ। প্রতিদিন এই ঘরোয়া চিকিৎসাটি করলে স্ট্রেচ মার্ক অনেকটাই কমে যায়। 

অ্যালোভেরা এবং ক্যাস্টর অয়েলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-ই এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে। যা ত্বককে টানটান রাখতে সাহায্য় করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই স্ট্রেচ মার্ক কমতে শুরু করে। 

অন্য়দিকে হলুদেও রয়েছে এমন কিছু এনজাইম যা ত্বকের কুঁচকে যাওয়া কমায়। ফলে যে মুহূর্তে চামড়া টানটান হতে শুরু করে। সেই সময় থেকেই কমতে শুরু করে শরীরের এই অনাবশ্য়ক দাগগুলো। 

কীভাবে বানাবেন এই ওষুধ?

একটা বাটিতে সব উপকরণ পরিমাণ মতো নিয়ে ভালো করে মেশান। এই মিশ্রণটি নিয়ে শরীরে যেসব অংশে অবাঞ্চিত দাগ হয়েছে সেখানে সেখানে লাগান। ২০ মিনিট রেখে মিশ্রণটি ধুয়ে ফেলুন। তিন মাস যদি নিয়মিত এই মিশ্রনটি লাগানো যায়, তাহলে দাগ অনেকাংশেই হালকা হয়ে যায়।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস