মেট্রোরেল প্রকল্পের মালামাল চুরি: মূলহোতা হাবিবুরসহ ছয়জন কারাগারে

মেট্রোরেল প্রকল্পের মালামাল চুরি: মূলহোতা হাবিবুরসহ ছয়জন কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:১৮ ১৩ নভেম্বর ২০২১  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

রাজধানীর তুরাগ এলাকা মেট্রো রেল প্রকল্পের মালামাল চুরির ঘটনায় গ্রেফতার সংঘবদ্ধ চোর চক্রের মূলহোতা হাবিবুর রহমানসহ ৬ জনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরার আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কারাগারে যাওয়া অপর আসামিরা হলেন- মারুফুল ইসলাম, বোরহান উদ্দিন, মো. সুরুজ, মো. রুবেল ও মো. জহিরুল ইসলাম ওরফে রিয়াদ।

এদিন ছয় আসামিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ সময় আসামিপক্ষে তাদের আইনজীবীরা জামিন চেয়ে আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে, বৃহস্পতিবার রাতে তুরাগ নতুন বাজার খালপাড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে র‍্যাব। এ সময় তাদের কাছ থেকে চোরাইকৃত ৮৭৭০ কেজি বিভিন্ন ধরনের লোহাসহ একটি ট্রাক উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, ঢাকা মহানগরীর তুরাগ থানা এলাকায় সংঘবদ্ধ একটি চোরাকারবারী চক্র দীর্ঘদিন ধরে মেট্রোরেল প্রকল্প ছাড়াও সরকারের কিছু প্রকল্পের লোহা, ইস্পাত, তার, মেশিন চুরি করে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় বিক্রি করে আসছে। গত কয়েক বছর ধরে ঢাকাসহ আশেপাশে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প পরিচালিত হয়ে আসছে। প্রকল্পগুলোর কার্যক্রম চলাকালীন প্রয়োজনীয় বিভিন্ন উপকরণ স্তুপ আকারে থাকা কালে একটি সংঘবদ্ধ চোরাকারবারি দল সুযোগ মতো চুরি করে তাদের পছন্দ মতো গোপন একটি জায়গায় নিয়ে গিয়ে সেগুলো সহজে বহনযোগ্য করে বিভিন্ন ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করে থাকে। হাবিবুর রহমান চক্রটির মূলহোতা। তার সহযোগী সুরুজ, রুবেল ও  রিয়াদদের সহায়তায় মেট্রোরেলসহ বিভিন্ন প্রকল্পের অপ্রয়োজনীয় লোহা, ইস্পাত, তার, মেশিন কৌশলে চুরি করে একটি গোপন স্থানে নিজেদের হেফাজতে রাখে।পরবর্তী সময়ে তারা সুযোগ বুঝে চোরাই মালগুলোকে কেটে বহনযোগ্য করে মারুফুল ইসলাম ও বোরহান উদ্দিনের কাছে বিক্রি করে প্রচুর অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে রাজধানীর তুরাগ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ