সিআইডির বরখাস্তকৃত এসআই আকসাদুদ ফের রিমান্ডে 

সিআইডির বরখাস্তকৃত এসআই আকসাদুদ ফের রিমান্ডে 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৪৫ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৯:২৯ ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

সিআইডির বরখাস্তকৃত উপ-পরিদর্শক আকসাদুদ জামান- ছবি: সংগৃহীত

সিআইডির বরখাস্তকৃত উপ-পরিদর্শক আকসাদুদ জামান- ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে মামলায় সিআইডির বরখাস্তকৃত উপ-পরিদর্শক আকসাদুদ জামানের দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম নিভানা খায়ের জেসীর আদালত তার এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

এদিন রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করে ফের পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। এরই শুনানি শেষে আদালত তার দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

এর আগে ৮ সেপ্টেম্বর রংপুরের মিঠাপুকুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেস করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এরপর ৯ সেপ্টেম্বর  তাকে আদালতে হাজির করে এ মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই মাসুদুল ইসলাম। এসময় আসামিপক্ষে তার আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তার পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আকসাদুদ জামান সিআইডির ঢাকা মেট্রো (পূর্ব) বিভাগে উপ-পরিদর্শক (এসআই) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। লুটের ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে সম্প্রতি তাকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। ডিবি পরিচয়ে তিনি এক বিদেশগামী যাত্রীর কাছ থেকে পাঁচ হাজার ইউএস ডলার, দুই হাজার দিরহাম ও দুই হাজার টাকা, দুটি মোবাইলসহ কাপড়-চোপড় ভর্তি ব্যাগ ছিনিয়ে নেন। ঘটনার তদন্তে ধারাবাহিকভাবে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হলেও ধরা-ছোঁয়ার বাইরে ছিলেন মূলহোতা আকসাদুদ জামান।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১৯ অক্টোবর সকাল পৌনে সাতটায় ভুক্তভোগী বিদেশগামী এক প্রবাসী টিকাটুলির বাসা থেকে অটোরিকশাযোগে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাওয়ার জন্য বের হন। সকাল সাড়ে সাতটার দিকে তিনি কাওলা ফুটওভার ব্রিজের নিচে পৌঁছালে একটি মাইক্রোবাস অটোরিকশার গতিরোধ করে। এরপর মাইক্রোবাস থেকে দুজন নেমে ডিবি পরিচয়ে ভুক্তভোগীকে তার লাগেজসহ মাইক্রোবাসে তুলে নেয়। তাকে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে সঙ্গে থাকা পাঁচ হাজার ইউএস ডলার, দুই হাজার দিরহাম, দুই হাজার টাকা, দুটি মোবাইলসহ কাপড়-চোপড় ভর্তি ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। সকাল ৯টার দিকে রাজধানীর স্টাফ কোর্য়াটার এলাকায় ভুক্তভোগীকে রাস্তার পাশে ফেলে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ২০ অক্টোবর বিমানবন্দর থানায় একটি দস্যুতার মামলা করেন ভুক্তভোগী।

মামলাটি তদন্তের ধারাবাহিকতায় তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় মো. মোশারফ হোসেন (৪৫), মো. সেলিম মোল্লা (৪২), মো. রিপন মোড়ল (৫৫), মো. আমির হোসেন তালুকদার (৫৬), মো. বিষ্ণু মিয়া সিকদার (২৫) ও মো. হাসান রাজাকে (৩৮) গ্রেফতার করা হয়। তাদের মধ্যে হাসন রাজাসহ কয়েকজন আদালতে জবানবন্দি দেন। 
গ্রেফতার আসামিদের পর্যালোচনায় জানা যায়, ডাকাতিতে সিআইডি ডেমরা জোনে কর্মরত (বর্তমানে বরখাস্ত হওয়া) এসআই মো. আকসাদুদ জামান প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। তদন্তের একপর্যায়ে আকসাদুদ জামানকে গ্রেফতার করা হয়। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ