গঠনমূলকভাবে সমালোচনা করুক: বুবলি

গঠনমূলকভাবে সমালোচনা করুক: বুবলি

রুম্মান রয় ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৪৬ ২৭ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৮:৪৬ ২৭ জানুয়ারি ২০২১

শবনম ইয়াসমিন বুবলি

শবনম ইয়াসমিন বুবলি

শবনম ইয়াসমিন বুবলি। একজন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। বাংলাভিশনে সংবাদ পাঠিকা হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন। ২০১৬ সালে ‘বসগিরি’তে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তার। চলচ্চিত্রটির মাধ্যমে তিনি শ্রেষ্ঠ নবীনশিল্পী বিভাগে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার অর্জন করেন।

মাঝে অনেকদিন ধরাছোঁয়ার বাহিরে ছিলেন নায়িকা। সম্প্রতি আবারো কাজে ফিরবেন তিনি, এমনটাই জানিয়েছেন ডেইলি বাংলাদেশ-এর সঙ্গে আলাপকালে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রুম্মান রয়। 

দিনকাল কেমন যাচ্ছে আপনার?
শবনম বুবলি:
দিনকাল ভালোই যাচ্ছে। এখনো তো পুরোপুরি করোনা যায়নি তবে আগের থেকে কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে। এখন সবকিছু মিলিয়ে সবাই অল্প অল্প করে কাজ শুরু করছে। আমিও কাজের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। খুব শীঘ্রই কাজে ফিরবো।

সম্প্রতি আপনি একটি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল খুলেছেন। কোনো ভাবনা থেকে কি ইউটিউব চ্যানেলটি খোলা?
শবনম বুবলি:
গত বৃহস্পতিবার(২২ জানুয়ারি) আমি এটা ওপেন করেছি। এটা আসলে সময়ের সঙ্গে ডিমান্ড করে। সময়ের চাহিদাকে তো আর অস্বীকার করা যাবে না। আমার যে বিভিন্ন ফেক ইন্সটাগ্রাম আইডি,পেজ আছে ওখান থেকে বিভ্রান্তিকর নানান কিছু আসতো। এখন আমার সব অরিজিনাল লিঙ্কগুলো কিন্তু আমার ভেরিফাইড পেজে শেয়ার করা হয়েছে। ইউটিউবে আমার এখান থেকেই আসা। মনে হলো, যদি কোন রিয়েল চ্যানেল থাকে তাহলে আমার সঙ্গে দর্শকেরা কানেক্ট থাকতে পারবে। এই ভাবনাগুলো থেকেই আমার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল খোলা। 

আপনার ইউটিউব চ্যানেলে কি কি ধরনের কনটেন্ট থাকবে?
শবনম বুবলি:
আমার চ্যানেলে অনেক কিছু থাকবে। যেমন,কিছু সোস্যাল ম্যাসেজ থাকবে। একজন তারকা হিসেবে এটা আমার দায়িত্বেরই একটা অংশ। অনেক ব্যাপারে অডিয়েন্সদেরকে জানাবো। আমার কিছু কাজের প্রমোশনাল থাকবে। আমার কাজের ব্যাপারে অনেক কিছু থাকবে। বিহ্যাইন্ড দ্য সিন, পারসোনাল কিছু ব্লগ থাকবে। আমার ভালো লাগাগুলোও থাকবে সেখানে।

আপনি কাজে ফিরছেন কবে?
শবনম বুবলি:
খুব শীঘ্রই আমাকে দেখতে পাওয়া যাবে। পরিকল্পনাটা ওভাবেই করেছি। একটু সময় নিচ্ছি কারণ মাত্র তো বছর শুরু হলো। আমার সঙ্গে কিছু প্রজেক্ট নিয়ে কথা হচ্ছে। আশা করি খুব শীঘ্রই আমি তা জানাতে পারবো।

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এখন অনেক তারকাই ওটিটি প্লাটফর্মে কাজ করছেন। আপনার কি এই প্লাটফর্মে কাজ করার ইচ্ছা আছে?
শবনম বুবলি:
প্রথমত আমি এটাকে সাধুবাদ জানাই। কারণ এটা আমাদের সময়ের সঙ্গে একটা ডিমান্ড করে, সময়ের একটা পরিবর্তন বলতে পারেন। গত বছর তো দেশের বাইরের অনেক বড় বড় বাজেটের হলিউড-বলিউড ছবিগুলো ভিডিও স্ট্রিমিং সাইটে মুক্তি পেয়েছে। আমি এটাকে ওয়েলকাম জানাই।

কিন্তু আমার কাছে দিনশেষে মনে হয়, সিনেমা হলে গিয়েই দেখা উচিত। এটা যেনো বিলুপ্ত না হয়ে যায়। তাহলে তো আমাদের বিগ স্ক্রিন কথাটা উঠে যাবে। আমার কাছে ওয়েবসিরিজ, ওয়েবফিল্ম করার অফার আসছে। ফিল্ম রিলেটেড সবকিছুর সঙ্গে আমি থাকতে চাই। ওয়েবফিল্মের কথা আমি এই মুহূর্তে বলতে পারছিনা। সেটা আমার ভালো লাগলে গল্প পছন্দ হলে প্রজেক্ট পেলে অবশ্যই আমি করতে চাই ওয়েবফিল্ম।

আপনাকে বরাবরই বিগ বাজেটের সিনেমাগুলো’তে দেখা যায়। এর কারণ কি?
শবনম বুবলি:
আসলে বিগ বাজেট কোনো বিষয় না। গ্রামের একটা গল্প হলে তো আমাদের গ্রামে গিয়েই করতে হবে। এখানে কিন্তু আমরা চাইলেও খুব বেশি কিছু দেখাতে পারবো না। দিনশেষে একটা ভালো গল্প, একজন ভালো নির্মাতা হলে কাজটা করতে আমার কোন আপত্তি নাই। যখন দেখি ভালো গল্প এবং ভালো নির্মাতা আছেন কাজটা ভালো হবার সম্ভাবনা আছে সেটাই আমি গুরুত্ব দেই। 

সুপারস্টার শাকিব খানের বাইরে প্রথমবার অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করলেন। নিরবের সঙ্গে ‘ক্যাসিনো’ নিয়ে আপনার প্রত্যাশা কেমন?
শবনম বুবলি:
আমি বরাবরই বলেছিলাম আমি একটু সময় নিচ্ছি। কারণ আমি চাচ্ছি ভালো একটা প্রজেক্ট হোক। ভালো প্রজেক্ট পেলে অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করতেও আমার কোন আপত্তি নাই। আর সেটার জন্যই আমি অপেক্ষা করছিলাম। আমার মন মতো প্রজেক্ট আসলে তাহলে আমি পরপর করতাম। আমি সব সময়ই বলেছি আমি সব নায়কের সঙ্গেই কাজ করবো; কিন্তু আমার ভালোলাগার প্রজেক্ট হতে হবে।

সেই ধারাবাহিকতায় কিন্তু নিরব ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করা শুরু ক্যাসিনো’তে। যেখানে ডিরেক্টর সৈকত নাসির ভাই একজন খুবই ভালো ডিরেক্টর, গল্পটাও প্রচন্ড ভালো ছিলো আর সহশিল্পী হিসেবে তিনি চমৎকার। আমি এটা অবশ্যই বলবো সৈকত নাসির ভাই, নিরব ভাই উনারা যে পরিবেশ দিয়েছেন আমার মনে হয়নি যে আমি অন্য টিমের সঙ্গে কাজ করেছি। 

নিরব ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করে আমার আলাদা কিছু মনে হয়নি, সবকিছু একই রকম মনে হয়েছে। ‘ক্যাসিনো’ তো গত বছরই কাজ শেষ হয়েছে। এবছর মুক্তি পাবে। আমরা সবাই অধীর আগ্রহে আছি কাজটার জন্য। আশা করছি দর্শকরা কাজটি পছন্দ করবে। এবছর আমার আরেকটি সিনেমা শাহীন ভাই পরিচালিত ‘বিদ্রোহী’ মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এখানে আমার সঙ্গে আছেন দেশসেরা নায়ক শাকিব খান। অনেকবারই রিলিজের পরিকল্পনা করেছে; কিন্তু মাঝখানে আর হয়নি। আমি আশা করছি এ বছরই মুক্তি পাবে।

সমালোচনাকে কিভাবে দেখেন?
শবনম বুবলি:
আমি পজিটিভভাবেই দেখি। যারা ভালো মনমানসিকতার; তারা সমালোচনা করলেও সঠিকভাবে করে। আর যারা অন্যরকম মানসিকতার তারা তাদের সমালোচনার ভাষাটায় তাদের রুচির পরিচয়টা পাওয়া যায়। আমার কাছে প্রথম প্রথম খুব খারাপ লাগতো। 

সত্যি কথা যখন আমি প্রথম কাজ শুরু করি তখন মনে করতাম, এটা আমাকে নিয়ে বলছে? আমি ভাবতাম আমি এটার জবাব দিবো। কারণ আমরাও তো রক্তমাংসের মানুষ। তখন অনেকেই সিনিয়র-জুনিয়র আমাকে বুঝাতো- আপনি যেখানে কাজ করতে এসেছেন এখানে জায়গাটাই এমন। এখানে আপনি যতই ভালো থাকেন আপনাকে নিয়ে কথা বলবেই।

এখন আর এটা নিয়ে ভাবিনা, যারা বলার বলুক। দিনশেষে কাজটাই থাকবে। আর যারা সমালোচনা করছে যাদেরকে নিয়ে করছে এখন আমি যদি তাদের নিয়ে ভাবি তাহলে আমার কাজটা করবো কখন।

প্রথমই আমাদের শিল্পী-সংস্কৃতিকে সম্মান করতে হবে। আমাদের শিল্পীদেরকে সম্মান করতে হবে। আমার কথা হচ্ছে সমালোচনা করলে সেটা গঠনমূলকভাবে করুক। একটা কাজ ভালমন্দ মিলিয়ে হয়। তারমধ্যে কখনোই ১০০ ভাগ খারাপ হয় না। সেই খারাপের পাশাপাশি ভালো দিকও থাকে। আমার কথা কাজটা কোন কোন দিক ভালো আছে সেগুলোও লিখুক।।শিল্পী, পরিচালক, প্রযোজকরা তাহলে আগ্রহ পাবে পরবর্তীতে ভালো কাজ করার জন্য। 

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস