বাইকের চাবি নিয়ে ঝগড়া, ছেলের হাত কেটে নিল বাবা!

বাইকের চাবি নিয়ে ঝগড়া, ছেলের হাত কেটে নিল বাবা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৫৯ ৫ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ২২:০৪ ৫ আগস্ট ২০২২

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

বাইক নিয়ে ঝামেলার জেরে ছেলের হাত কেটে নিল বাবা। তার পর সেই কাটা হাত নিয়েই থানায় হাজির হলেন তিনি। অন্য দিকে, অতিরিক্ত রক্তপাতে মৃত্যু হয় ছেলের। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের দামোর বোবাই গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম সন্তোষ পটেল (২১)। অভিযুক্ত বাবা মোতি পটেল। কাজে যাওয়ার জন্য সন্তোষের কাছে বাইকের চাবি চেয়েছিলেন মোতি এবং তার বড় ছেলে রামকিসান। কিন্তু তাঁদের বাইকের চাবি দিতে অস্বীকার করেন সন্তোষ। এ নিয়ে তিন জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। তার পরই সন্তোষকে আক্রমণ করেন মোতি এবং রামকিসান।

অভিযোগ, সন্তোষের যে হাতে বাইকের চাবি ছিল সেই হাত একটি কাঠের উপর জোর করে ঠেসে ধরেন মোতি। তার পর কুড়ুল দিয়ে হাত কেটে ফেলেন। তার পর ছেলের সেই কাটা হাত নিয়ে সোজা জারাত থানায় হাজির হন এবং সমস্ত ঘটনা খুলে বলেন।

আরো পড়ুন>> সুইপার থেকে ব্যাংকের এজিএম, গল্পকেও হার মানালেন এই নারী

এই খবর শুনেই পুলিশের একটি দল বোবাই গ্রামে মোতির বাড়িতে যায়। সেখান থেকে সন্তোষকে উদ্ধার করে প্রথমে প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখান থেকে তাকে জেলা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা জানান, অস্ত্রোপচার করতে হবে। কিন্তু সেখানে অত্যাধুনিক অস্ত্রোপচারের ব্যবস্থা নেই। তাই তাকে জবলপুরে নিয়ে যেতে বলা হয়। কিন্তু অতিরিক্ত রক্তক্ষরণেই পথেই মৃত্যু হয় সন্তোষের। বাবা এবং ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্র: আনন্দবাজার

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী