বন্দিদের দিয়ে নারী রক্ষীদের ধর্ষণ করানো হয় ইসরায়েলের কারাগারে!

বন্দিদের দিয়ে নারী রক্ষীদের ধর্ষণ করানো হয় ইসরায়েলের কারাগারে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:১৬ ১ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ১৭:৩৪ ১ আগস্ট ২০২২

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বার বার তাকে যৌনদাসী হিসেবে ব্যবহার করেছে জেল কর্তৃপক্ষ। দিনের পর দিন বন্দিদের দিয়ে ধর্ষণ করানো হয়েছে! প্রাক্তন এক নারী কারারক্ষীর অভিযোগে তোলপাড় ইসরায়েল। অবিলম্বে এই অভিযোগের তদন্তের নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ।

উত্তর ইসরায়েলের গিলবোয়া জেল। এখানকার সিংহভাগ বন্দিই প্যালেস্তাইনের। ওই জেলেরই এক প্রাক্তন নারী কারারক্ষীর অভিযোগ, কর্তৃপক্ষ জেনেবুঝে বার বার তাকে বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছেন।

অনলাইনে অভিযোগ লিপিবদ্ধ করেছেন ওই নারী। সেখানে তিনি লেখেন, “আমাকে যৌনদাসী হিসাবে ব্যবহার করেছে জেল কর্তৃপক্ষ। বার বার বন্দিদের হাতে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের ব্যক্তিগত যৌনদাসী করা হয়েছে।”

অভিযোগকারিণীর আইনজীবী কেরেন বারাক আদালতে জানান, তার মক্কেল অভিযোগের প্রমাণ দিতে পারেন। কিন্তু তার আগে তার মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসার প্রয়োজন।

গিলবোয়া কারাগারে নারী রক্ষীরা যে বন্দিদের দ্বারা নির্যাতিত হচ্ছেন, এই অভিযোগে একাধিক সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমে। কিন্তু এর আগে রক্ষীদের কেউ এমন স্পষ্ট ভাবে অভিযোগ করেননি।

আরো পড়ুন>> আগামী নির্বাচনেও মোদির ওপরই ভরসা রাখছে বিজেপি

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ছয় প্যালেস্তাইন বন্দি জেলের সুড়ঙ্গ দিয়ে বাইরে পালায়। এ নিয়ে শোরগোল হয় সে দেশে। এই ঘটনার তদন্তে উঠে আসে বেশ কিছু বিস্ফোরক তথ্য। সেখানে নাকি পুরুষ রক্ষীরা নারী সহকর্মীদের ইচ্ছাকৃত ভাবে বিপদের মুখে ঠেলে দেন।

ওই প্রাক্তন নারী কারারক্ষীর অভিযোগ নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী।

রোববার ইয়াল লাপিদ তার মন্ত্রিসভায় বলেন, “এক জন রক্ষী তার কর্তব্য পালন করতে গিয়ে সন্ত্রাসবাদীদের দ্বারা ধর্ষিতা হচ্ছেন, এমনটা কল্পনাও করা যায় না।” তার সংযুক্তি, “অবিলম্বে এর তদন্ত শুরু করতে হবে। রক্ষীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করাও আমাদের দায়িত্ব।”

সূত্র: ডেইলি মেইল

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী