মেয়েদের জন্য স্কুল খুলে দিচ্ছে তালেবান

মেয়েদের জন্য স্কুল খুলে দিচ্ছে তালেবান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:৫২ ১৮ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ০৯:৫৫ ১৮ জানুয়ারি ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আফগান নারীরা চাকরি ও পড়াশোনার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। মেয়েদের জন্য বন্ধ দেশটির মাধ্যমিক স্কুলগুলো। বারবার অধিকার আদায়ে রাস্তায় নামতে হচ্ছে তাদের। এমন অবস্থায় মার্চের মধ্যে দেশটিতে নারীদের জন্য সব স্কুল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে তালেবান সরকার।

সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তালেবান সরকারের মুখপাত্র ও দেশটির সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাবিউল্লাহ মুজাহিদ অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের সঙ্গে আলাপকালে আশা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, মার্চের মধ্যেই পুরো আফগানিস্তানে মেয়েদের জন্য স্কুলগুলোকে খুলে দেয়া হবে।

আরো পড়ুন: আফগানিস্তানে ৫.৩ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ২৬

মুজাহিদ আরো বলেন, আমরা শিক্ষার বিরুদ্ধে নই। নারী শিক্ষার বিষয়টি আসলে সক্ষমতার সঙ্গে জড়িত। আমরা এই বছরই এগুলো সমাধানের চেষ্টা করছি। ফলে স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো চালু করা সম্ভব হবে।

অনেক রাজ্যেই নারীদের জন্য স্কুল খোলা আবার অনেক স্থানেই নারীদের স্কুল বন্ধ। এর কারণ অর্থনৈতিক সংকট। যেসব এলাকায় অধিক মানুষের বাস। সেসব এলাকা নিয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের নতুন পদ্ধতিও তৈরি করতে হবে।

গত বছর আগস্টে তালেবান সরকার ক্ষমতায় আসার পর তারা নারীদের শিক্ষা বন্ধে কোনো ঘোষণা দেয়নি। যদিও দেশব্যাপী তালেবান যোদ্ধারা বিভিন্ন জায়গায় মেয়েদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেয়।

এছাড়া তালেবান সরকার নারীদের দূরবর্তী স্থানে ভ্রমণের ক্ষেত্রেও পুরুষসঙ্গী বাধ্যতামূলক করেছে। নারীদের বোরকা পরতে উৎসাহিত করতে প্রচার চালিয়ে আসছে দেশটির পুণ্যের প্রচার ও পাপ প্রতিরোধ মন্ত্রণালয়।

আরো পড়ুন: করোনায় মৃত্যু কমেছে, সংক্রমণ ছাড়াল ৩৩ কোটি

এর আগে আফগানিস্তানে নারীশিক্ষায় তালেবানের পদক্ষেপ ‘খুবই হতাশাজনক’ ও ‘পশ্চাৎমুখী’ বলে মন্তব্য করেছিলেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল থানি।

কাতার যে প্রক্রিয়ায় ইসলামি শাসনব্যবস্থা কায়েম করেছে, সেদিকে নজর দিতেও তালেবান নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ