ইথিওপিয়ায় সেনাবাহিনীর হাতে আটক বিবিসির সাংবাদিক

ইথিওপিয়ায় সেনাবাহিনীর হাতে আটক বিবিসির সাংবাদিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৪৯ ২ মার্চ ২০২১  

ছবি: গিরমে গেব্রু

ছবি: গিরমে গেব্রু

ইথিওপিয়ার সংঘাতপূর্ণ টিগ্রে অঞ্চল থেকে বিট্রিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির একজন সাংবাদিককে আটক করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। গিরমে গেব্রু নামের সেই সাংবাদিক বিবিসির টিগ্রিনিয়া বিভাগের জন্য কাজ করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গিরমে গেব্রু ও তার সঙ্গে আরও চারজনকে আঞ্চলিক রাজধানী মেকেলের একটি ক্যাফে থেকে আটক করা হয় এবং স্থানীয় একটি সেনা শিবিরে নিয়ে যাওয়া হয়।

কিন্তু তাদেরকে কেন আটক করা হয়েছে সে বিষয়ে বিবিসি এখনও কিছু জানতে পারেনি। তবে ইথিওপিয়ার কর্তৃপক্ষের কাছে বিবিসি এ বিষয়ে তার উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

সাম্প্রতিক কয়েকদিনে তামিরাত ইয়েমানি নামে একজন স্থানীয় সাংবাদিক এবং দু'জন অনুবাদক-আলুলা আকালু ও ফিৎসুম বারহানিকেও আটক করা হয়েছে। আলুলা আকালু ফাইনানসিয়াল টাইমস এবং ফিৎসুম বারহানি এএফপি সংবাদ সংস্থার জন্য কাজ করতেন।

নভেম্বর মাস থেকে ইথিওপিয়ার সরকার টিগ্রেতে বিদ্রোহী বাহিনীর সাথে যুদ্ধ করছে। টিগ্রেতে সংঘাত শুরুর পর কয়েক মাস ধরে সংবাদমাধ্যমে এ বিষয়ে খবর প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা সফলভাবে কার্যকর করার পর সরকার মাত্র গত সপ্তাহে কিছু আন্তর্জাতিক সংবাদ প্রতিষ্ঠানকে খবর প্রচারের অনুমতি দিয়েছে।

এএফপি এবং ফাইনানসিয়াল টাইমস এই দুটি সংবাদ মাধ্যমকে এই যুদ্ধের খবর প্রচারের অনুমতি দেয়া হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, গিরমে গেব্রুকে গ্রেফতার করার অভিযান চালিয়েছে সামরিক ইউনিফর্ম পরা সৈন্যরা।

বিবিসির একজন মুখপাত্র বলেছেন, ইথিওপিয়া কর্তৃপক্ষের কাছে আমরা আমাদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছি এবং আমরা তাদের কাছ থেকে জবাবের অপেক্ষায় রয়েছি।'

ইথিওপিয়া সরকার বিদ্রোহী গোষ্ঠী টিগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তাদের বিজয় ঘোষণা করা সত্ত্বেও টিগ্রেতে লড়াই চলছে।

এই লড়াইয়ে শত শত লোকের প্রাণহানি হয়েছে এবং গৃহহীন হয়েছেন আরও হাজার হাজার মানুষ।

দু'পক্ষই নৃশংসতা চালাচ্ছে এবং সেখানে মানবিক সঙ্কট তীব্র আকার নিচ্ছে এমন খবর ক্রমশ আরও বেশি প্রকাশিত হবার পর আন্তর্জাতিক মহল থেকে উদ্বেগ প্রকাশ হয়েছে বলে সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন।

ইথিওপিয়ার ক্ষমতাসীন দলের একজন কর্মকর্তা সম্প্রতি হুঁশিয়ার করেন, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে বিভ্রান্ত যারা করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী