১৪ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করে বেকায়দায় পাকিস্তানি এমপি

১৪ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করে বেকায়দায় পাকিস্তানি এমপি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:১২ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মাত্র ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরীকে বিয়ে করার অভিযোগ পাকিস্তানের সংসদ সদস্য (এমপি) সালাহউদ্দিন আয়ুবির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে দেশটির পুলিশ।

বালুচিস্তানের সাংসদ মাওলানা জামিয়ত উলেমা এ ইসলামের এই নেতা সম্প্রতি বিয়ে করে এই বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন।

দেশটির একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার অভিযোগ আমলে তদন্তে নামে পাকিস্তানি পুরিশ। অভিযোগে রয়েছে, এক কিশোরীকে জোর করে বিয়ে করেছেন ওই সাংসদ।

নিজের বয়স থেকে চার গুণ কম বয়েসী কিশোরীকে বিয়ের এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ বালোচিস্তানের সাধারণ মানুষ। সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে মানুষের প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে।

পাকিস্তান পুলিশের সংশ্লিষ্ট মহল বলছে, ওই কিশোরী সরকারি স্কুলের ছাত্রী। ২০০৬ সালের ২৮শে অক্টোবর জন্ম হয়েছে ওই কিশোরীর।

গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, সালাউদ্দিন আয়ুবির বয়স ৫০-এর কোটায়। চিত্রাল পুলিশ স্টেশন এসএইচও

ইন্সপেক্টর সাজ্জাদ আহমেদ বলেন, কিছুদিন আগে এনজিওর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ওই কিশোরীর বাড়িতে যায়। তখন তার বাবা মেয়ের বিয়ের বিষয়টি নাকচ করে দেন।

পাকিস্তানের আইন অনুযায়ী দেশটিতে ১৬ বছরের কম বয়সী মেয়েদের বিয়ে দেয়া আইনত অপরাধ। এছাড়া কোন বাবা মা যদি ইচ্ছাকৃতভাবে এক কাজ করে তাদেরও শাস্তির মুখে পড়তে হবে।

সূত্র: এনডিটিভি

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী