চিরকুট লিখে সাত বারের এমপির ‘আত্মহত্যা’

চিরকুট লিখে সাত বারের এমপির ‘আত্মহত্যা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:০৮ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৬:৫৫ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ছবি: মোহান দেলকার

ছবি: মোহান দেলকার

ভারতের মুম্বাইয়ের একটি হোটেল থেকে সাত বারের সংসদ সদস্য মোহান দেলকারের (৫৮) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে তার মরদেহ উদ্ধার করে মুম্বাই পুলিশ।

পুলিশ প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে, মোহান দেলকার আত্মহত্যা করেছেন। হোটেল কক্ষে তার মরদেহের পাশে কয়েক পাতার চিরকুট পাওয়া গেছে। চিরকুটে কয়েকজনের নাম উল্লেখ আছে। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানায়নি মুম্বাই পুলিশ। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, মুম্বাইয়ের অভিজাত মেরিন ড্রাইভে একটি সি ফেসিং হোটেলে উঠেছিলেন এ প্রভাবশালী এমপি। সেখান থেকেই সোমবার বিকেলে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। দেলকারের স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

আদিবাসীদের অধিকারের জন্য আজীবন কাজ করেছেন তিনি। প্রথম দিকে ছিলেন ট্রেড ইউনিয়ন নেতা। ১৯৮৯ থেকে ২০০৯ সালের মধ্যে পর পর ছয়বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন মোহান দেলকার।

তিনি ১৯৮৯ সালে প্রথম দাদরা ও নগর হাবেলিতে কংগ্রেস থেকে লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর কংগ্রেস থেকেই ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে লোকসভায় যান তিনি। ১৯৯৮ সালের নির্বাচনে বিজেপি থেকে সংসদ সদস্য হন দেলকার। পরে তিনি আবার কংগ্রেসে ফিরে আসেন। তবে ২০০৯ ও ২০১৪ সালের নির্বাচনে পরাজিত হন দেলকার। পরে ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেন।

তদন্তকারী কর্মকর্তারা বলছেন, আত্মহত্যার জন্য একটি শাল ব্যবহার করেন মোহান দেলকার। তিনি আগে থেকে বিছানার উপর একটি কাঠের টুল এনে রেখেছিলেন, যাতে সেটার উপর দাঁড়িয়ে শালটি গলায় পেঁচিয়ে ঝুলে আত্মহত্যা করতে পারেন। শালটি হোটেল থেকে সংগ্রহ করতে পারেন তিনি। সম্ভাব্য সব বিষয় নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী