বিতর্কিত নিরাপত্তা আইনে হংকংয়ের মিডিয়া মুঘল জিমি লাই গ্রেফতার

বিতর্কিত নিরাপত্তা আইনে হংকংয়ের মিডিয়া মুঘল জিমি লাই গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫২ ৩ ডিসেম্বর ২০২০  

ছবি: পুলিশের হাতে গ্রেফতার জিমি লাই

ছবি: পুলিশের হাতে গ্রেফতার জিমি লাই

বিদেশি শক্তির সঙ্গে আঁতাতের অভিযোগে হংকংয়ের মিডিয়া মুঘল জিমি লাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত জুন থেকে কার্যকর বিতর্কিত নিরাপত্তা আইনের অধীনে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার স্থানীয় সময় ভোররাতে পুলিশ নিজ বাড়ি থেকে লাইকে ধরে নিয়ে যায় বলে তার মালিকানাধীন সংবাদপত্র অ্যাপল ডেইলির বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

হংকং পুলিশ জানিয়েছে, নতুন নিরাপত্তা আইন লঙ্ঘন করেছে সন্দেহে তারা ৩৯ থেকে ৭২ বছর বয়সী সাত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। তবে তাদের নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ। এ বিষয়ে আরো গ্রেফতারের ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানিয়েছে তারা।

গত ৩০ জুন হংকংয়ের জন্য কঠোর এই নিরাপত্তা আইনটি চালু করে বেইজিং, যার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো।

হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থী সবচেয়ে বড় পত্রিকা অ্যাপল ডেইলির মালিক জিমি লাই গণতান্ত্রিক আন্দোলনের বড় সমর্থক হিসেবে পরিচিত। গত বছর দানা বাঁধা গণতন্ত্রপন্থী আন্দোলনের পক্ষে ছিলেন তিনি। তাকে গ্রেফতারের পাশাপাশি তার পত্রিকার দফতরেও পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে।

৭১ বছর বয়সী জিমি লাইয়ের বিরুদ্ধে গত ফেব্রুয়ারিতে অবৈধ সমাবেশ করাসহ হুমকি-ধমকি দেয়ার অভিযোগ আনা হয়। এক বিলিয়ন ডলারেরও বেশি সম্পদের মালিক জিমি লাই যুক্তরাজ্যেরও নাগরিক।

চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত পত্রিকা গ্লোবাল টাইমস জিমি লাইকে ‘দাঙ্গার সমর্থক’ অভিহিত করে বলেছে, তার প্রকাশনাগুলো বছরের পর বছর ধরে বিদ্বেষ উসকে দিচ্ছে, গুজব ছড়াচ্ছে এবং হংকং কর্তৃপক্ষ ও চীনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে।

জিমি লাইয়ের দুই ছেলেকেও গ্রেফতার করা হয়েছে বলে গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে। তারা নেক্সট ডিজিটাল লিমিটেডের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী। নেক্সট ডিজিটাল জিমি লাইয়ের মিডিয়া কোম্পানি।

হংকংবাসীর চরম বিরোধিতা সত্ত্বেও কার্যকর করা এই আইনের অধীনে এ পর্যন্ত গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে জিমি লাই সবচেয়ে বড় নাম।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী