হংকংয়ের শীর্ষ গণতন্ত্রপন্থী নেতাদের কারাদণ্ড  

হংকংয়ের শীর্ষ গণতন্ত্রপন্থী নেতাদের কারাদণ্ড  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:২০ ২ ডিসেম্বর ২০২০  

ছবি: জশুয়া ওং, অ্যাগনেস চোউ ও ইভান লাম

ছবি: জশুয়া ওং, অ্যাগনেস চোউ ও ইভান লাম

হংকংয়ে সরকারবিরোধী সমাবেশে জড়িত থাকার দায়ে শীর্ষ তিন গণতন্ত্রপন্থী নেতাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

গত বছর বেআইনি সমাবেশ আয়োজন ও এতে অংশ নেয়ার দায়ে আদালত তিন সুপরিচিত গণতন্ত্রপন্থি নেতা জশুয়া ওং, অ্যাগনেস চোউ ও ইভান লামকে দোষী সাব্যস্ত করে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

চীনবিরোধী বিক্ষোভে ফুঁসে উঠেছিল গোটা হংকং। কিন্তু কঠোর শাস্তির বিধান রেখে মূল ভূখণ্ড চীনের সরকার হংকংয়ের জন্য বিতর্কিত একটি জাতীয় নিরপত্তা আইন প্রণয়ন করার পর ওই বিক্ষোভ স্তিমিত হয়ে পড়েছে।

তবে অপরাধের সময়কাল কথিত ওই জাতীয় নিরাপত্তা আইন কার্যকর হওয়ার আগে হওয়ায় শীর্ষ গণতন্ত্রপন্থী নেতা জোশুয়া ওং ও বাকি দুজন সম্ভাব্য যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এড়াতে পেরেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনজনের মধ্যে ওংকে সাড়ে ১৩ মাসের, চোউকে ১০ মাসের ও লামকে ৭ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রায়ের আগ পর্যন্ত এ তিনজনই রিমান্ডে ছিলেন; তাদের মধ্যে ওংকে নির্জন কয়েদখানায় রাখা হয়েছিল।

“অভিযুক্তরা পুলিশ সদরদপ্তর দখলে নিতে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছিল। তাদের দেওয়া স্লোগানে পুলিশ বাহিনীকে হেয় করেছে। তাদেরকে যত দ্রুত সম্ভব কারাগারে পাঠানোই উপযুক্ত সাজা হবে,” বলেছেন বিচারক ওং ঝি-লাই।

রায় ঘোষণার সময় চোউকে কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা গেছে; অন্যদিকে ওং চিৎকার করে বলেছেন, “সামনের দিনগুলো কঠিন হতে যাচ্ছে। তবুও আমরা সেখানে টিকে থাকবো।”

মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল হংকংয়ের তিন গণতন্ত্রপন্থি কর্মীকে দেয়া কারাদণ্ডের নিন্দা জানিয়েছে। এ রায়ের মাধ্যমে যারা প্রকাশ্যে সরকারের সমালোচনার সাহস দেখাতে ইচ্ছুক তাদেরকে কর্তৃপক্ষ সতর্ক বার্তা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছে তারা।

“কোনোরকম দেরি ছাড়াই এ সাজা প্রত্যাহার ও তাদেরকে দ্রুত শর্তহীন মুক্তি দেয়া উচিত,” বলেছে তারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী