সরকারি প্রস্তাবে না, আইন বাতিলে অনড় ভারতের কৃষকরা

সরকারি প্রস্তাবে না, আইন বাতিলে অনড় ভারতের কৃষকরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৩১ ২ ডিসেম্বর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভারতের বিতর্কিত নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসেও কোনো সমাধানে আসতে পারেনি দেশটির কেন্দ্রিয় সরকার। কৃষি আইন নিয়ে আরো আলোচনার জন্য নতুন কমিটি গঠনের সরকারি প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন কৃষকরা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে তিন কেন্দ্রিয় মন্ত্রীর উপস্থিতিতে কৃষকদের সঙ্গে আলোচনা হয়।

এ সময় সরকারের পক্ষ থেকে কৃষকদের দাবি নিয়ে আলোচনার জন্য একটি কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেয়া হয়।

এ প্রস্তাব নাকচ করে ৩৫টি কৃষক সংগঠন বলছে, এখন কমিটি গঠনের সময় নয়। সরকারের পক্ষে বৈঠকে ছিলেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর, কেন্দ্রীয় বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গয়াল ও শিল্প প্রতিমন্ত্রী সোম প্রকাশ।

কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র তোমর কমিটি গঠনের প্রস্তাব দিয়ে বলেন, কমিটিতে কৃষিবিশেষজ্ঞ ও সরকারের প্রতিনিধিরাও থাকবেন। এরা নতুন কৃষি আইন নিয়ে আলোচনা করবেন। এই প্রস্তাব মানতে রাজি হননি কৃষক সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

প্রথম দিনের আলোচনায় কোনো সমাধান না আসায় ঠিক হয়েছে, আগামী বৃহস্পতিবার আবার আলোচনা হবে।

বৈঠকের পর কৃষক সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেয়া হয়েছে, কৃষি আইন বাতিল করার রাস্তা থেকে পিছিয়ে আসার কোনো সুযোগ নেই।

ভারতের নতুন কৃষি আইনে বলা হয়েছে, কৃষকরা চাইলেই যে কারো কাছে উৎপাদিত ফসল বিক্রি করতে পারবেন। যা আগে শুধু সরকার অনুমোদিত এজেন্টদের কাছে বিক্রি করা যেত। তবে কৃষকেরা বলছেন, এর ফলে সরকার-নির্ধারিত মূল্যে পাইকারি বাজারে ফসল বিক্রির যে ব্যবস্থা তাদেরকে মুক্ত বাজার অর্থনীতি থেকে সুরক্ষা দিয়ে আসছিল, তা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এর ফলে ভারতের কৃষি খাতে কর্পোরেট নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা হতে পারে। তখন আরো কম মূল্যে ফসল বিক্রি করতে বাধ্য হবেন কৃষকেরা।

নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ডসহ কয়েকটি রাজ্যের একাধিক কৃষক সংগঠন দিল্লিতে অবস্থান নিয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ