ফের ফ্রান্সের উস্কানিমূলক মন্তব্য,পণ্য বয়কটকারীরা নাকি ‘উগ্র সংখ্যালঘু’

ফের ফ্রান্সের উস্কানিমূলক মন্তব্য,পণ্য বয়কটকারীরা নাকি ‘উগ্র সংখ্যালঘু’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৩৮ ২৬ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৬:১৮ ২৬ অক্টোবর ২০২০

সারা বিশ্বে ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের ডাক

সারা বিশ্বে ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের ডাক

আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের উৎস ইসলাম- ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রোঁর এমন বিদ্রূপাত্মক মন্তব্য এবং ফ্রান্সে হযরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশ করায় মধ্যপ্রাচ্যসহ সারা বিশ্বে দেশটির পণ্য বয়কটের ডাক উঠেছে।

পণ্য বর্জন না করতে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘উগ্র সংখ্যালঘুদের’ পক্ষ থেকে এই বয়কটের ‘ভিত্তিহীন’ ডাক দেয়া হয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, কুয়েত, জর্ডান এবং কাতারের কিছু কিছু দোকান থেকে ফরাসি পণ্য সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এছাড়া লিবিয়া, সিরিয়া এবং গাজা উপত্যকায় বিক্ষোভ হয়েছে।

বিষয়টি উল্লেখ করে ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘উগ্র সংখ্যালঘুদের ইন্ধনে পণ্য বয়কটের এই আহ্বান ভিত্তিহীন এবং এখনই তা বন্ধ করা উচিত, সেই সঙ্গে আমাদের দেশের বিরুদ্ধে সব ধরনের আক্রমণও’।

এর আগে হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন ছাপানোর সাফাই গেয়ে ম্যাক্রোঁ বলেন, আমরা কখনোই এটা (মূল্যবোধ) বিসর্জন দেবো না।

চলতি মাসের শুরুর দিকে তিনি ফ্রান্সে ‘মুসলিম বিচ্ছিন্নতাবাদীদের’ রুখতে কঠোর আইন তৈরির পরিকল্পনা ঘোষণা করেন।

তিনি ইসলামকে ‘সংকটে থাকা ধর্ম’ উল্লেখ করে বলেন, ফ্রান্সের প্রায় ৬০ লাখ মুসলিম ‘কাউন্টার সোসাইটি’ তৈরির চিন্তা করছে।

ম্যাক্রোঁর কড়া সমালোচনা করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান বলেছেন, ইসলাম এবং মুসলিমদের নিয়ে ম্যাক্রোঁর মতো ব্যক্তিদের কী সমস্যা? তার মানসিক পরীক্ষা করোনা উচিত।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ ইসলাম ধর্মকে আক্রমণ করে ইসলাম ভীতি ছাড়ানোয় উৎসাহ দিচ্ছেন। এটা দুঃখজনক যে, তিনি তার নিজের জনগণসহ মুসলিমদের ইচ্ছা করে উস্কে দেয়ার পথ বেছে নিয়েছেন।

এছাড়া লিবিয়ায় জাতিসংঘ সমর্থিত সরকার ফ্রান্সের কোম্পানিগুলোর সঙ্গে ব্যবসা বন্ধে ব্যবস্থা নিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এসএমএফ