মধ্যপ্রাচ্যে ফরাসি পণ্য বয়কট ঠেকাতে মরিয়া ফ্রান্স

মধ্যপ্রাচ্যে ফরাসি পণ্য বয়কট ঠেকাতে মরিয়া ফ্রান্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৩৭ ২৬ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৫:৩৯ ২৬ অক্টোবর ২০২০

জর্ডান, কাতার ও কুয়েতের অনেক দোকানের তাক থেকে ফ্রান্সে তৈরি চুল এবং সৌন্দর্য পণ্যসহ সব ধরনের পণ্য সরিয়ে নেয়া হয়েছে। 

জর্ডান, কাতার ও কুয়েতের অনেক দোকানের তাক থেকে ফ্রান্সে তৈরি চুল এবং সৌন্দর্য পণ্যসহ সব ধরনের পণ্য সরিয়ে নেয়া হয়েছে। 

মোহাম্মদ সা.-এর ‘কার্টুন’ প্রদর্শনের জেরে ফরাসি শিক্ষক স্যামুয়েল পাটিকে হত্যা ঘটনায় নানা মন্তব্য করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রো। এমনকি দেশটির দুটি ভবনে মোহাম্মদ সা.-এর ‘কার্টুন বা ব্যাঙ্গচিত্র’ প্রদর্শন করা হয়েছে। এসবের জেরে ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক দেয় মধ্যপ্রাচ্যের সব দেশের নাগরিক ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান। এতেই নানা যুক্তি দেখিয়ে পণ্য বয়কট ঠেকাতে মরিয়া ফান্স।

রোববার থেকে জর্ডান, কাতার ও কুয়েতের অনেক দোকানের তাক থেকে ফ্রান্সে তৈরি চুল এবং সৌন্দর্য পণ্যসহ সব ধরনের পণ্য সরিয়ে নেয়া হয়েছে। 

কুয়েতে প্রধান একটি রিটেইল ইউনিয়ন ফরাসি পণ্য বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে। বেসরকারি ইউনিয়ন অব কনজ্যুমার কো-অপারেটিভ সোসাইটি জানায়, ইসলামের নবীকে ‘বার বার অসম্মান’ করার কারণে তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এক বিবৃতিতে ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ সিদ্ধান্তের কথা স্বীকার করে লিখেছে, ‘বয়কটের এই ডাক ভিত্তিহীন এবং অবিলম্বে বাতিল করা উচিত। সেই সঙ্গে আমাদের দেশের বিরুদ্ধে উগ্র সংখ্যালঘুদের পরিচালিত সব হামলাও বন্ধ করা উচিত।’

বিভিন্ন আরব দেশ যেমন সৌদি আরবে অনলাইনে ফরাসি পণ্য বয়কটের আহবান জানানো হচ্ছে। আরব বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনীতির দেশ সৌদি আরবে ফরাসি সুপারমার্কেট চেইন শপ ‘ক্যাফৌউ’ বয়কট করা নিয়ে হ্যাশট্যাগ দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ট্রেন্ডিং ইস্যু হিসেবে উঠে এসেছে।

এদিকে, লিবিয়া, গাজা ও উত্তর সিরিয়ার তুরস্ক সমর্থিত সশস্ত্র বাহিনীর নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে ফরাসি বিরোধী ছোট ছোট বিক্ষোভও হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ