মিয়ানমারে ১০ কোটি বছর আগের শুক্রাণু পেলেন বিজ্ঞানীরা

মিয়ানমারে ১০ কোটি বছর আগের শুক্রাণু পেলেন বিজ্ঞানীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৫৬ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:৫৭ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

১০ কোটি বছর আগের শুক্রাণুর সন্ধান

১০ কোটি বছর আগের শুক্রাণুর সন্ধান

মিয়ানমারে আনুমানিক ১০ কোটি বছর আগের প্রাণীর শুক্রাণুর সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। জার্মানি ও ব্রিটেনের বিজ্ঞানীদের নিয়ে বিশ্বের প্রাচীনতম প্রাণীর শুক্রাণু আবিষ্কার করেছেন চীনের একটি বিশেষজ্ঞ দল।

বুধবার বিশ্বখ্যাত রয়্যাল সোসাইটির জার্নালে এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

চীনা একাডেমি অব সায়েন্সেসের নানজিং ইনস্টিটিউট অব জিওলজি অ্যান্ড প্যালিয়ন্টোলজির তথ্যানুযায়ী, আনুমানিক ১০ কোটি বছর আগের এ শুক্রাণু ছোট একটি খোলসের ভেতরে মিলেছে। এটির ওজন ০.৬৭৬ গ্রাম। এতে ৩৯ ওস্ট্রাকডের নমুনা রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, মিয়ানমারে আবিষ্কৃত এ শুক্রাণু বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীনতম শুক্রাণু।

এর আগে আনুমানিক পাঁচ কোটি বছর আগের প্রাণীর শুক্রাণুর সন্ধান মেলে। নতুন আবিষ্কৃত শুক্রাণুটি ওস্ট্রাকড নামে এক প্রজাতির ক্রাস্টাসিয়ান (কঠিন আবরণযুক্ত জলজ প্রাণী) থেকে এসেছিল। একে কখনো কখনো ‘সিড শ্রিম্প’ নামে ডাকা হয়। এটি মহাসাগর, হ্রদ, নদী ও পুকুরে পাওয়া যেত।

গবেষকদের প্রাপ্ত প্রাচীন ওস্ট্রাকড শুক্রাণুর আকৃতি এখনকার ওস্ট্রাকডের এক তৃতীয়াংশ যা আধুনিক গঠনের সঙ্গে মিল পাওয়া গেছে। প্রাচীন ওস্ট্রাকড বেশি পরিমাণ শুক্রাণু উৎপাদন করতো এবং বর্তমান সময়ের ওস্ট্রাকডদের মতোই যৌন প্রজনন কাজে জড়িত হতো।

গবেষক দলের অন্যতম সদস্য ওয়াং হে বলেন, বেশি পরিমাণ শুক্রাণুর ফলে সফল যৌন কাজ ভালোভাবে সম্পন্ন হতো। এতে ওস্ট্রাকডের বিশাল সংখ্যা হয়েছিল। 

সূত্র-সিটিজিএন

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ