বিয়ে এড়াতে ছাড়েন বাড়ি, সাত বছর পর অফিসার হয়ে ফিরলেন মেয়ে

বিয়ে এড়াতে ছাড়েন বাড়ি, সাত বছর পর অফিসার হয়ে ফিরলেন মেয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩৫ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০  

সঞ্জু রানি ভার্মা

সঞ্জু রানি ভার্মা

সিনেমাটিক কাহিনির মতোই বিয়ে এড়াতে ছেড়েছিলেন বাড়ি। স্বপ্নপূরণের লড়াইয়ে নিজেই একমাত্র যোদ্ধা। অদম্য জেদ আর অধ্যবসায়ে বাড়ি ছাড়া মেয়েটি আজ সরকারের অফিসার। সফলতা হাতের মুঠোয় পেতে লেগেছে সাত বছর। আর সফলতা নিয়েই বাড়ি ফিরলেন সঞ্জু রানি ভার্মা।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর, ভারতের উত্তরপ্রদেশের মারাঠের বাসিন্দা সঞ্জু রানি ভার্মা। সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম তার। মায়ের মৃত্যুর পর তার লেখাপড়ায় বাধা দেয় পরিবারের লোকেরা। বিয়ে করে তাকে সংসারি হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। কিন্তু নাছোড়বান্দা সঞ্জু। তার ও পরিবারের সদস্যদের মাঝে শুরু হয় চাপাচাপি। নিজের পায়ে দাঁড়ানোর অদম্য ইচ্ছা ও স্বপ্নের কথা পরিবারকে জানান সঞ্জু। কিন্তু তার মতামত আমলে নেয়নি পরিবার।

পরিবারই যখন তার প্রতিদ্বন্দ্বী তখন কঠিন সিদ্ধান্ত নেন সঞ্জু। ২০১৩ সালে তিনি বাড়ি ছেড়ে পাড়ি জমান দিল্লিতে। সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় বসতে প্রস্তুতি শুরু করেন। শুনতে যতটা সহজ লাগছে, কাজে ততটাই কঠিন।

সঞ্জু রানি ভার্মা বলেন, ২০১৩ সালে বাড়ি ছাড়ার পাশাপাশি পড়াশোনাও ছেড়ে দিতে হয়। কারণ টাকা ছিল না। তখন একটি বেসরকারি স্কুলে আংশিক সময়ের শিক্ষিকার কাজ পাই। তাই দিয়ে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে শুরু করি।

মারাঠের আর জি ডিগ্রি কলেজে গ্র্যাজুয়েশন করার পর দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাস করেন সঞ্জু। তিনি উত্তরপ্রদেশ প্রভিন্সিয়াল সিভিল সার্ভিস এগজামিনেশন ২০১৮ উত্তীর্ণ হয়েছেন। সম্ভবত উত্তরপ্রদেশের কমার্শিয়াল ট্যাক্স অফিসার হিসেবে চাকরিতে যোগ দেবেন তিনি। তার লক্ষ্য অনেক দূর। পড়াশোনা করে ইউপিএসসি পরীক্ষায় বসতে চান তিনি। নিজেকে জেলা প্রশাসক হিসেবে দেখতে চান সঞ্জু রানি ভার্মা।

সূত্র-এবিপি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ