আমিরাত ও বাহরাইনের সঙ্গে শান্তিচুক্তি করেই গাজায় ইসরায়েলের হামলা

আমিরাত ও বাহরাইনের সঙ্গে শান্তিচুক্তি করেই গাজায় ইসরায়েলের হামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৪১ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:৪৪ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হোয়াইট হাউসে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের সময়ে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজায় রকেট হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। ইসরায়েলের দাবি শুরুতে গাজা থেকে ইসরায়েলে রকেট হামলার পর জবাবে তারা এই হামলা চালিয়েছে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী জানিয়েছে, বুধবার ভোরে গাজায় হামাসের ঘাঁটি লক্ষ্য করে দশটি বিমান হামলা চালানো হয়েছে। এর আগে গাজা থেকে ইসরায়েলের সীমান্ত এলাকায় ১৫টি রকেট হামলা চালানো হয়। 

এর আগে মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির হোয়াইট হাউসে ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের আনুষ্ঠানিক শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান চলাকালে ইসরায়েলের উপকূলীয় শহর আশদোদে গাজা থেকে ছোড়া একটি রকেট আঘাত হানে, এতে দুই জন আহত হন।

এর পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে পরদিন ভোররাতে গাজায় বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। ভোররাতের এই হামলা-পাল্টা হামলায় কেউ হতাহত হয়েছেন কিনা, দুপক্ষের কেউই সে বিষয়ে কিছু জানায়নি।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, বুধবার তারা তাদের ক্ষেপণাস্ত্র-বিধ্বংসী সিস্টেম আয়রন ডোম দিয়ে আটটি রকেট প্রতিহত করেছে।

এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, গাজার যেসব লক্ষ্যে হামলা চালানো হয়েছে তার মধ্যে একটি অস্ত্র ও বিস্ফোরক তৈরির কারখানা এবং রকেট পরীক্ষা ও প্রশিক্ষণের জন্য হামাসের ব্যবহৃত একটি কম্পাউন্ড রয়েছে।

অপরদিকে গাজার ইসলামিক জিহাদ গোষ্ঠী জানিয়েছে, ইসরায়েলি বিমান হামলার জবাবে ‘প্রতিরোধ শক্তির’ পক্ষ থেকে ইসরায়েলে দিকে একযোগে বহু রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে।  

গাজা ও ইসরায়েলে অধিকৃত পশ্চিম তীর নিয়ে ফিলিস্তিনিরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ইসরায়েলের সঙ্গে উপসাগরীয় দুটি আরব দেশ শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করার মধ্য দিয়ে তাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে বলে মনে করছে তারা।

সূত্র: রয়টার্স, আল জাজিরা

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ/মাহাদী